Fri, 14 Dec, 2018
 
logo
 

জেল খাটসি, আদর্শ বেচি নাই: শামীম ওসমান

লাইভ নারয়ণগঞ্জ: বাপ দাদার পরিচয় দিয়ে উঠে আসি নাই। আমি রাস্তা থেকে উঠে আসি নাই। না খেয়ে রাজনীতি করেছি। পকেটে মুড়ি নিয়ে ছাত্র রাজনীতি করেছি। মাইলের পর মাইল হেটেছি। ১৭-১৮ বছর থেকে জেল খাটা শুরু করেছি, কিন্তু আদর্শ বেচি নাই।

বুধবার (৫ ডিসেম্বর) ফতুল্লা থানার এনায়েতনগর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড এর ফাজিলপুর এলাকায় ১নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠন আয়োজিত উঠান বৈঠকে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন এমপি শামীম ওসমান।

শামীম ওসমান বলেন, এই যে ইয়াং জেনারেশন, যদি মনে করো রাজনীতিতে আসবা ধান্দা করার জন্য তাহলে আইসো না। দেশকে ভালবাসলে আইসো। কারণ ‘দিস ইজ ইউর কান্ট্রি’। মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নিয়ে রাজনীতি করি। টার্গেট, বাংলাদেশকে মাথা উঁচু করে দাড় করাবো। সারা বাংলাদেশে সবচেয়ে ধনী পরিবারের ছেলে ছিলাম আমরা। আবার ৭৫ থেকে ৭৯ পর্যন্ত না খাইয়া কাটাইছি আমরা। একবেলা খাইয়া দুইবেলা খাই নাই। নয়শো টাকার জন্য পরীক্ষার ফরম-ফিলাপ করতে পারি নাই। তবুও আফসোস নাই।
তিনি আরো বলেন, বাবা আমাগো জন্য এক টাকা রাইখা যায় নাই। আর আল্লাহর হুকুমে আমার বাবা সৎ ছিল বলেই আমরা এক মেয়ের তিন ছেলে এমপি হইছি। বাংলাদেশের ইতিহাসে এই ঘটনা আর নাই। হইবো কি না তাও সন্দেহ আছে। আমার মতো গুনাহগার বান্দাকে আল্লাহ অনেক দিছেন। মানুষের সেবা করার জন্য রাজনীতিতে আসছি। কারণ রাজনীতি একটা এবাদত।

এনায়েতনগর ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ড মেম্বার ও নির্বাচন কেন্দ্র পরিচালনা কমিটির আহবায়ক সালাউদ্দিন আহম্মাদ এর সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আসাদুজ্জামান।

এছাড়া আরো উপস্থিত ছিলেন, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সওকত চেয়ারম্যান, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত হোসেন ভূইয়া সাজনু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সাফায়েত আলম সানি, এনায়েতনগর ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ড মেম্বার বাতেন তালুকদারসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম