Mon, 18 Feb, 2019
 
logo
 

কামাল-সালমা দম্পত্তি: ভালবাসার ৪০ বছর

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘দাম্পত্য জীবনের পথচলা শুরু ১৯৭৮ সালের ২৮ শে জানুয়ারি। প্রথম দেখা ১৯৭৭ সালে, পারিবারিক আত্মীয়তা থাকার কারণে দেখা হয়েছে অনেক বার। বাবার পছন্দেই বিয়ে করি তার সঙ্গে। তবে যেমন জীবন সঙ্গী চেয়েছি সে তেমনই। জীবনের খারাপ সময় গুলোতে অনেক সাপোর্ট করেছে আমায়।’


এভাবেই মুচকি হাসি দিয়ে নিজের দাম্পত্য জীবন নিয়ে লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলছিলেন মহানগর বিএনপি’র সাধারন সম্পাদক এটিএম কামাল।

কামাল-সালমা দম্পত্তি: ভালবাসার ৪০ বছর
দেখতে দেখতে বিয়ের ৪০ টি বছর পার করে দিলেন। সুখ-দুঃখ ভাগাভাগি করে নেয়ার অঙ্গিকার নিয়ে একে অপরের সাথে গাঁটছড়া বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন মহানগর বিএনপি’র সাধারন সম্পাদক এটিএম কামাল ও সালমা সুলতানা কেয়া দম্পত্তি। চার সু-সন্তানের জনক এই দম্পত্তি। বড় ছেলে সোহান মাস্টার্স ফাইনাল পরিক্ষা দিয়েছে, দুই মেয়ে বিয়ে করে দেশের বাইরে থাকেন আর ছোট মেয়ে ইন্টার মিডিয়েটে পড়ছেন।

কামাল-সালমা দম্পত্তি: ভালবাসার ৪০ বছর
দাম্পত্য জীবন নিয়ে এটিএম কামাল লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, প্রথম দেখাতেই আমার ওকে ভাল লাগে। আমি খুবই সৌভাগ্যবান যে এমন স্ত্রী পেয়েছি। জীবনের প্রতি ক্ষেত্রে পেয়েছি তার সহযোগীতা। আমার সাথে আমার স্ত্রীর অনেক কিছুর মিল রয়েছে, তাইতো এতগুলো বছর একসাথে। নিজের খেয়ে বনের মেষ তারানোর মত আমার স্বভাব। আমাদের মত কিছু লোক আছে যারা নীতিবান, সৎ, মানুষের জন্য কাজ করতে চায়; সমাজটাকে বদলে দিতে চায়। এ ধরনের আকাঙ্খা নিয়ে যারা কাজ করে তাদের মানুষ পাগল বলে। পাগলের সাথে ঘর করা কিন্তু খুব কষ্টের ব্যাপার। অনেকেই বলে ভাবী দেখেই তোমার ঘর করেছে, অন্য কেও হলে থাকতো না। নিজের পরিবারকে বঞ্চিত করে দেশের জন্য সমাজের জন্য কেও করেনা। ইচ্ছে করলেই ইউরোপ আমেরিকাতে স্যাটেল হতে পারতাম। এ পাগলামি গুলো আমার স্ত্রী সাপোর্ট করেছে সবসময়।
অন্যদিকে সালমা সুলতানা কেয়া লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, আমার জীবন সঙ্গী নিয়ে স্বপ্ন ছিল, যার সাথে বিয়ে হবে তার মনের সাথে মিলবে কিনা। এখন ৪০ বছর পর নিঃসন্দেহে এর উত্তর: হ্যাঁ। ও খুব ভাল একজন মানুষ, সবসময় মানুষের উপকার এর কথা চিন্তা করে, এ বিষয়টাই ভাল লাগে আমার।
দুজনেই ভ্রমণ বিলাসী, তাইতো সময় পেলেই ছুটে যান পাহাড়-সমুদ্রে। প্রতি বছর বিবাহ বার্ষিকীতে গরিব শিশুদের মনোরঞ্জন ও ভাল খাবার খাওয়ানোর চেষ্টা করেন এই দম্পত্তি। দুজনের শেষ ইচ্ছে আল্লাহর ঘর ও নবীজির রওজা শরিফ ভ্রমণ। এই ইচ্ছা আল্লাহ পূরণ করুক ও দাম্পত্য জীবন সুখে-সমৃদ্ধিতে কাটুক এই প্রত্যাশায় লাইভ নারায়ণগঞ্জ এর পক্ষ থেকে রইল অনেক শুভ কামনা।

 

সর্বশেষ সংবাদ শিরোনাম