রবিবার, মে ১৯, ২০২৪
Led01জেলাজুড়েশিক্ষা

বাহারি পিঠার আয়োজনে ‘নিউরন স্কুলে’ শিশু শিক্ষার্থীদের বরণ

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: মায়ের হাতে হাত রেখে নতুন বছরে স্কুলের প্রথম দিনে উপস্থিত হয়েছে শিশুরা। অন্যদিনের তুলনায় একটু শীতের তীব্রতা থাকলেও প্রথম স্কুলে যাওয়ার আনন্দের কাছে এ যেনো একেবারেই তুচ্ছ। একইসাথে স্কুলেরও কমতি ছিলো না নবীনদের বরণের আয়োজনে। শিশুদের বেলুন-ফুল ও তাজ পড়িয়ে গ্রহণ করেন নিউরন স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা সুমি আহম্মেদ।

শনিবার (১৩ জানুয়ারি) নগরীর মাসদাইর শেরে-ই-বাংলা রোড এলাকায় বাংলা মাধ্যম ও ইংলিশ ভার্সন স্কুল ‘নিউরন স্কুল’ এ শিশুদের নবীন বরণ ও শীত কালীন পিঠা উৎসবের আয়োজন করা হয়। এ সময় স্কুলের শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন নারী উদ্যোক্তরা এই পিঠা উৎসবে অংশগ্রহণ করেন। এদের মধ্যে পিঠা ও নানা খাবারের আয়োজন নিয়ে ছিলেন, ‘টুনি পোকার দল, গৃহিনীর রসুই ঘর, রকমারি কুটির, কে এইস কুইজিন, নিজের হাতের শখের রান্না, ইষ্টিকুটুম মিষ্টিকুটুম এবং হাও মাও পিঠা খাও’ নামের বিভিন্ন উদ্যেক্তাগণ।

নানা রকম দেশী বিদেশী খাবারের মধ্যে ছিলো ভাজা পুলি পিঠা, চিকেন পুলি পিঠা, পাটি সাপটা পিঠা, বিবি খানা পিঠা, সিদ্ধ পুলি পিঠা, দুধ চুই, দুধ পলি, মালপোয়া, চন্দ্রপুলি, দৌল্লা পিঠা, তেলের পিঠা, সবজি সমুচা, চিকেন পাই, নুডুলস, চিকেন রোলসহ আরও কত কি।

এদিকে, নবীন বরণ অনুষ্ঠানে শুরুতেই নিউরন স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা সুমি আহম্মেদ নবীন শিশুদের সারিবদ্ধ করে ফুল দিয়ে বরণ করে নেন। এ সময় তিনি শিশুদের একটি বেলুন ও নিউরন স্কুলের শুভেচ্ছা লিখিত একটি তাজ পড়িয়ে দেন। পরে উৎসুক শিশুদের নিয়ে শীতের পিঠা ও নানা রকমের খাবারের সাথে পরিচিতি করিয়ে দেন।

নিউরন স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা সুমি আহম্মেদ বলেন, আমাদের নিউরন স্কুল শুধুই স্কুল নয়। এটা একটা পরিবার। আমাদের নিউরন পরিবারের পক্ষ থেকে আমরা সকল শিক্ষার্থী ও নবীনদের শুভেচ্ছা জানাই। ইতোমধ্যে সকলকে ফুল দিয়ে বরণ করে নিয়েছি। এছাড়া নতুন শিশুদের সাথে শুভেচ্ছা জানাই আমাদের নিউরন পরিবারের নতুন অভিভাবকদের। আমাদের আজকের আয়োজনে পিঠা উৎসবটা একটু ভিন্ন রকমের রেখেছি। এখানে বাহারি রকমের দেশী বিদেশী পিঠার পাশাপাশি রয়েছে নানা রকমের মুখরোচক খাবার। এছাড়াও শিশুদের জন্য আমরা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছি।

তিনি আরও বলেন, আজকে যারা এখানে বিভিন্ন স্টল দিয়ে পিঠার আয়োজন করেছে। তাদের খাবারের স্বাদ, মান-গুণ বিবেচনা করে একজনকে বিজয়ী ঘোষণা করবো। সেই সাথে তাদের পুরুষ্কৃত করবো। এই আয়োজনের পাশাপাশি একটি র‌্যাফেল ড্র ব্যবস্থা করা হয়েছে, যেখানে রয়েছে প্রায় ১৫টি পুরুস্কার। আজকের দিনটি নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে সবাই মিলে উপভোগ করাটাই হলো আমাদের মূল উদ্যেশ্য।

RSS
Follow by Email