শনিবার, জুন ১৫, ২০২৪
Led02জেলাজুড়েফতুল্লা

ফতুল্লায় গৃহবধুর আত্মহত্যা, স্বামী আটক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: স্বামীর বাড়িতে নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে এক গৃহবধূ বিষপানে আত্মহত্যার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার ফতুল্লার পাগলা রসুলপুর এলাকায় দুলাল মিয়ার বাড়িতে ওই ঘটনা ঘটে। এঘটনায় পুলিশ শুক্রবার (২০ অক্টোবর) সকালে নিহত গৃহবধূর স্বামী ট্রাক ড্রাইভার আক্কাস হাওলাদারকে আটক করেছে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।

নিহত গৃহবধুর নাম শিরিন বেগম (২৫)। সে বরগুনা জেলার তালতলা থানার উত্তর চরপাড়া গ্রামে ওয়ারেছ হাওলাদারের মেয়ে। এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে নির্যাতন ও আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগ এনে স্বামী, শ্বাশুড়ি, দেবর, ননদসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন।

মামলায় উল্লেখ করা হয়, বরগুনা জেলার তালতলা থানার উত্তর চরপাড়া গ্রামে ওয়ারেছ হাওলাদারের একমাত্র মেয়ে শিরিনকে (২৫) ৫বছর পূর্বে বরিশাল জেলার বাকেরগঞ্জ থানার শ্যামপুর গ্রামের মৃত. আব্দুর রশিদ হাওলাদারের ছেলে আক্কাস হাওলাদার প্রেমের সম্পর্ক করে বিয়ে করেন। বিয়ের পর তাদের সংসারে একটি পুত্র সন্তানের জন্ম হয়। বিয়ের পর থেকে তারা স্বামী স্ত্রী ও শ্বাশুড়ি জাহানারা বেগম (৫৫) এবং দেবর সাগর (২৩) ননদ ঝুমুর (৩৩) ফতুল্লার পাগলা রসুলপুর এলাকায় দুলাল মিয়ার বাড়িতে স্বপরিবারে ভাড়া থাকেন। এ বাড়িতেই শিরিনকে তার স্বামীসহ পরিবারের সকলে শারীরিক মানসিক নির্যাতন করতো। বৃহস্পতিবার বিকেলে স্বামী শ্বাশুড়ি দেবর ও ননদ মিলে শিরিনকে মারধর করে মাথায় আঘাত করে। এরপর শিরিনকে আত্মহত্যা করে মরার জন্য হুমকি দেয়। তখন শিরিন বিষ খেয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন। এরপর তাকে ঢাকা মেডিকেলে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন।

ফতুল্লা মডেল থানার ইন্সপেক্টর (অফিসার ইনচার্জ) নূরে আজম মিয়া জানান, এ বিষয়ে মামলা হয়েছে। একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে অন্যদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

RSS
Follow by Email