বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪
Led04জেলাজুড়েরাজনীতিসদর

‘পুলিশরা হকারদের মালামাল নিয়ে যায়, এটা দেখতেও খারাপ লাগে’

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা একেএম সেলিম ওসমান বলেছেন, পুলিশ হকার কন্ট্রোল করতে যাবে এটা আসলে ঠিক না। পুলিশরা ভ্যানে করে হকারদের মালামাল ছিনতাই করে নিয়ে যাবে এটা দেখতে খারাপ লাগে। আমাদের ওসি সার্বক্ষণিক নিজেদের ফোর্স নিয়ে মার্কেটটা নিরাপত্তার বিষয় ব্যস্ত থাকছেন। কিন্তু কোথাও যদি অঘটন ঘটে সেখানে কিন্তু ওসিকে পাওয়া যাচ্ছে না। এখানে যদি একটা মোবাইল কোর্ট সিস্টেম করা হয় তাহলে ভালো হবে। হকাররাও বুঝবে যে তারা আইনগত ভাবে অপরাধ করছে এবং মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে তাদের জরিমানা করা হচ্ছে।

শনিবার (৩০ মার্চ) দুপুরে বিকেএমইএ ভবনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন। এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম জীবন, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ শওকত হাসেম শকু ও ১৮ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্নাসহ আরও অনেকে।

তিনি আরও বলেন, মোবাইল কোর্ট যদি সিটি কর্পোরেশন এবং জেলা প্রশাসনের মাধ্যমে করা যায় তাহলে আমি মনে করি ঈদে নিরাপত্তাটা আরো ভালো হবে। এটা আসলে নারায়ণগঞ্জ সদর থানার উপর একটি চাপ পড়ে যায়। হকারদের মালামাল পুলিশ নিয়ে যাচ্ছে এটা আসলে বাজে ব্যাপার হয়ে যাচ্ছে। এ বিষয়টায় সিটি কর্পোরেশন ও জেলা প্রশাসনের যাওয়া উচিত। কারণ পুলিশ প্রশাসনের আরো অনেক বেশি দায়িত্ব আছে। নগরবাসীর জান মালের নিরাপত্তা পুলিশ নিশ্চিত করে।

সেলিম ওসমান বলেন, এখানে বিশেষ পুলিশ আনা হোক বা ভলেন্টিয়ার নিয়োগ দেয়া হোক। আমি মেয়র এর কাছে অনুরোধ করব যাতে একটা টহল টিম গঠন করার জন্য। তারা সব সময় টহলে থাকবেন। যাতে চলাফেরায় ছিনতাই থেকে যেন আমরা নগরবাসীকে বাঁচাতে পারি। আমি প্রশাসনের সাথে কথা বলেছি, যদিও এটা প্রশাসনের জন্য একটা কষ্টকর ব্যাপার হয়ে যায়। তবুও আমি জেলা প্রশাসনকে রাজি করিয়ে সিদ্ধান্ত দিচ্ছে যে, এপ্রিল মাসের ৫ তারিখ থেকে চাঁদ রাত পর্যন্ত হকারদের হলিডে মার্কেট প্রতিদিন বসবে। এটা এখন হলিডে মার্কেট নয়, ঈদ মার্কেট ঘোষণা দেওয়া হল। শুধু ঈদ নয় সামনে আরও একটি দিন রয়েছে পহেলা বৈশাখ। সে পহেলা বৈশাখ আমরা দেখব যে কিছু করা যায় কি না। তবে যেহেতু আমরা এত বড় একটি ঘোষণা দিচ্ছি আমরা হকারের কাছে অনুরোধ থাকবে কোন অবস্থায় অন্য কোন সড়কে বসা যাবে না। বিভিন্ন সময় দেখেছি যখন হলিডে মার্কেট থাকে তখন সব হকার একসাথে এই সলিমুল্লাহ সড়কে থাকে। যখন হলিডে মার্কেট তাকে না তখন তারা বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে যায়। একজনের জন্য লক্ষ লক্ষ মানুষের ক্ষতি হতে পারে না।

RSS
Follow by Email