মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
Led02রাজনীতি

নারায়ণগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষ, গুলিবিদ্ধ-আটক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে পুলিশের সাথে বিএনপি নেতাকর্মীদের ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। শনিবার (২৯ জুলাই) দুপুর পৌনে ১২ টায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের শীমরাইল এলাকায় কেন্দ্র ঘোষিত অবস্থান কর্মসূচি পালনকালে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় মহানগর বিএনপির আহবায়ক অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান, সদর থানা বিএনপির সভাপতি আনোয়ার প্রধান, মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ম আহবায়ক সাগর প্রধান সহ পাঁচজনকে আটক করে পুলিশ। সংঘর্ষ ফতুল্লা থানা বিএনপির আহবায়ক শহিদুল ইসলাম টিটু গুলিবিদ্ধ অন্তত পাঁচজন নেতাকর্মী আহত হয়েছে বলে দাবি বিএনপি নেতাদের।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কেন্দ্র ঘোষিত কর্মসূচির অংশ হিসেবে রাজধানীর প্রবেশ পথের শিমরাইলে অবস্থান কর্মসূচি করতে যায় নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর বিএনপির নেতাকর্মীরা। এসময় ডাচবাংলা গলির ভেতর দিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীদের সড়কে উঠতে গেলে পুলিশ তাদের বাধা দেয়। এসময় উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এক পর্যায়ে বিএনপির নেতাকর্মীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়ে। পরে, পুলিশও তাদের ছত্রভঙ্গ করতে রাবার বুলেট ও সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে।

জানা গেছে, সংঘর্ষের ঘটনায় ফতুল্লা থানা বিএনপির আহবায়ক শহিদুল ইসলাম টিটু চোখে গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হয়েছেন। বাকি আহতদের নাম তাতক্ষনিকভাবে পাওয়া যায়নি।

এদিকে, বিএনপি নেতাকর্মীদের ইটের আঘাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) গোলাম মোস্তফাসহ আহত হয়েছেন ৬ পুলিশ সদস্য।

পুলিশ জানায়, বিএনপির নেতা-কর্মীরা বিনা অনুমতিতে সড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে পুলিশ সেখানে গিয়ে তাদের সড়িয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। এসময় বিএনপির লোকজন পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছুড়ে। পরে পুলিশ লাঠিচার্জসহ রাবাব বুলেট ছুড়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

অন্যদিকে, জনগণের জানমালের রক্ষায় যা দরকার তাই করা হবে বলে জানান পুলিশ সুপার গোলাম মোস্তফা রাসেল।

RSS
Follow by Email