বুধবার, জুলাই ১৭, ২০২৪
Led02রাজনীতি

‘নগর ভবন’ এ মুগ্ধ সেলিম ওসমান, দিলেন ঢাকায় থাকার ব্যাখ্যা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দল মতের উর্দ্ধে বরাবরই এমপি সেলিম ওসমানের প্রশংসা সর্বত্র। তিনিও কাজকেই প্রাধান্য দেন। ভালোর কদর করেন। তবে, রাজনীতির মারপ্যাচে কখনও কখনও বির্তক আর সমালোচনার সৃষ্টি হয়। সোমবার নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের বাজেট ঘোষনা করেন মেয়র। বাজেট অনুষ্ঠানে বক্তব্য ও বিভিন্ন জনের প্রশ্নের জবাব দেন। ওই সময় মেয়র নানা বিষয়ের পাশাপাশি নারায়ণগঞ্জ-৪ ও নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপিদের নিয়েও তির্যক মন্তব্য করেন।

এনসিসির বাজেট, দুই এমপি ও ওসমান পরিবারকে ইঙ্গিত করে দেয়া বক্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানতে চাইলে এমপি সেলিম ওসমান শুরুতেই নগর ভবনের সৌন্দর্যের প্রশংসা করেন।
সেলিম ওসমান বলেন, গণমাধ্যমের কল্যানে আজকে নগর ভবন দেখলাম। আমি মুগ্ধ হয়েছি। আমাদের নারায়ণগঞ্জ শহরের বুকে এমন সুন্দর একটি ভবন। মেয়রকে ধন্যবাদ জানাই। আর আজকে যে বাজেট নগরীর জন্য ঘোষণা করা হয়েছে, আমি স্বাগত জানাই। এ বাজেট নগরবাসীর স্বার্থে ও কল্যানের হবে প্রত্যাশা করি।

অক্ষেপ করে সেলিম ওসমান এ প্রতিবেদককে জানান, আমি বাজেট অনু্ষ্ঠানের বিষয়ে জানতাম না। যদি জানতাম তাহলে সংসদ সদস্য হিসেবে নয়, সিটি কর্পোরেশনের একজন নাগরীক হিসেবেই উপস্থিত থাকতাম। জনপ্রতিনিধিরা এক টেবিলে বসলে অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যায়। যার সুফল পায় সাধারণ জনগন। তাদের স্বার্থেই আমাদের একসাথে বসা উচিত।

তিনি আরও বলেন, আমি বরাবর ব্যক্তি স্বার্থের উর্দ্ধে নারায়ণগঞ্জের উন্নয়নে মেয়রসহ সকলকেই আহ্বান জানিয়েছি, আমার সহযোগিতার হাত সব সময় সবার জন্য উম্মুক্ত।

ওসমান পরিবারের দুই এমপির ঢাকায় থাকার বিষয়টি জানতে চাইলে এমপি সেলিম ওসমান বলেন, ১৯৭৫ এর পরে ওসমান পরিবার উপর যে অত্যাচার, নির্যাতনের মুখোমুখি হয়েছে তা নারায়ণগঞ্জবাসী জানে। পাশাপাশি ওয়ান ইলেভেনের সময়ও যে রাজনৈতিক পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে আমরা ছিলাম। আমাদের পরিবারের কথা চিন্তা করে ঢাকায় তাদের রাখা। তবে, আমরা কিন্তু নারায়ণগঞ্জেই থাকি। আমাদের ঠিকানা নারায়ণগঞ্জ। আমাদের ব্যবসা নারায়ণগঞ্জে। নারায়ণগঞ্জের মানুষের সাথেই আমাদের বসবাস। তাদের সুখ-দুঃখে, উন্নয়নে আমরা নারায়ণগঞ্জবাসীর সাথেই থাকি। নারাযণগঞ্জে প্রায় রাত্রীযাপনও করে থাকি।

উল্লেখ্য, সংসদ সদস্য হয়ে নিজ এলাকার জন্য সরকারের কাছ থেকে অর্থ বরাদ্দের পাশাপাশি, নিজ টাকায় বন্দরে ১০টির উপরে স্কুল-মাদ্রাসা নির্মাণ করেছেন সেলিম ওসমান। শিক্ষার পাশাপাশি, রাস্তা ঘাটসহ বিভিন্ন উন্নয়নমুলক কাজে নিজ থেকে অর্থ বরাদ্দ দিয়ে থাকেন তিনি। তাই সদর-বন্দর এলাকার পাশাপাশি বহু মানুষের কাছে তিনি দানবীর খ্যাতি লাভ করেছেন। সম্প্রতি নারায়নগঞ্জের বন্দরে মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজড়িত উল্লেখযোগ্য ঐতিহাসিক স্থান সমরক্ষেত্র প্রাঙ্গণে স্মৃতিসৌধ নির্মাণে এমপি সেলিম ওসমান নিজস্ব তহবিল থেকে এক কোটি ৬৬ লাখ টাকা বরাদ্দ দেন।

এছাড়া, সদর-বন্দর এলাকার মানুষের জীবন যাত্রার মানের উন্নয়নসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সর্বদা উদ্বিগ্ন থাকেন। অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসা নিতে হাসপাতালে গেলেও খোজ-খবর রাখেন নিজ এলাকার মানুষের। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েই ছুটে যান বন্দরের এই প্রান্ত থেকে ওই প্রান্তে।

RSS
Follow by Email