বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪
Led02জেলাজুড়েশিক্ষাসদরস্বাস্থ্য

ছিন্নমূল মানুষের পাশে BHALO, উদ্বোধন হলো না.গঞ্জে

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নগরীর নিতাইগঞ্জে আন্তর্জাতিক অলাভজনক সেবামূলক প্রতিষ্ঠান BHALO’র শাখার উদ্বোধন করা হয়েছে। সোমবার (২২ এপ্রিল) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৫ নং ওয়ার্ডের নিতাইগঞ্জ ডাইলপট্টি এলাকায় ওই শাখার উদ্বোধন হয়।

সংগঠনটির উপদেষ্টা ও বিসিবির পরিচালক তানভীর আহমেদ টিটুর সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সদস্য একেএম শামীম ওসমান ও সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু চন্দন শীল, আমাদের নতুন সময় পত্রিকার সাবেক সম্পাদক নাঈমুল ইসলাম খান, BHALO`র সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শাহরিয়ার রহমান, স্বাথ্য বিষয়ক পরিচালক ডা. শামীম আহমেদ।

অনুষ্ঠানে এমপি শামীম ওসমান বলেন, মানুষের দুইটা জিনিস খুব দরকার। খুদা লাগলে খাবার, অসুস্থ হলে চিকিৎসা। আমার বাবা গ্রেপ্তার হওয়ার পর খুব খারাপ ভাবে আমাদের দিন গেছে। আওয়ামী লীগের বহু বড় বড় নেতা, কেউ আসেনি তখন। তোলারাম কলেজের ভিপি ছিলাম, ছাত্রনেতা হিসেবে যতটা ক্ষমতাবান ছিলাম আমার মত দশটা এমপিরও তত ক্ষমতা ছিলো না। তখনও কিন্তু ৯শত টাকার জন্য আমি আমার পরিক্ষার ফরম ফিল-আপ করতে পারি নাই। বর্তমানে আমি একটা সই দিয়ে এক হাজার ছেলের বেতন মওকুফ করে দিচ্ছি, তখন আমি আমার নিজের বেতন মওকুফ করি নাই। কারণ এটা আমার আদর্শ ছিলো এবং আছে। কিন্তু এখন কেমন জানি সব দিকে কেমন খাই খাই ভাব। এমন মনে হয়, যে মানচিত্রটাই খেয়ে ফেলবে। আমাদের নতুন প্রজন্মের কাজ হচ্ছে, ভালো মানুষদের জন্য রাস্তা পরিস্কার করা। আর বিনিময়ে কিছু না চাওয়া। মানুষের সমালোচনা করা অনেক সহজ, কিন্তু মানুষের প্রশংসা করা খুব কঠিন। তবে, আমরা চেষ্টা করি সবাইকে ভালো বলতে।

তিনি বলেন, সবাই যদি আমরা ভালো কাজ করি তাহলে পৃথিবী ভালো হয়ে যায়। যারা আজ যুদ্ধে লিপ্ত তারা যদি দুই বছর অস্ত্র তৈরি করা বন্ধ করে তাহলে পৃথিবীর কোন মানুষ না খেয়ে থাকবে না।

লিপি ওসমান বলেন, আমি বাংলাদেশের যেকোনো জায়গায় যেকোনো জেলায় কোন বিপর্যয় হলে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করি। আমার ছোটখাটো একটা টিম রয়েছে। কিন্তু BHALO‘র ব্যাপকতা দেখে, আমার মনে হচ্ছে আমরা নিজেরাই সফল। BHALO‘র এই সফলতাকে আমার নিজের সফলতা মনে হচ্ছে। আমার বড় ভাইয়ের কাছ থেকে শুনে সবচেয়ে বেশি ভালো লেগেছে গাজায় তারা ইফতার সামগ্রী পাঠাতে পেরেছে। সেই অভুক্ত মানুষগুলোর জন্য যারা ইফতার খেতে পায় না। ইফতারের সময় তারা ঘাস খেয়ে অনেক সময় ইফতার করেছে এবং খাদ্যের অভাবে বহু মানুষ মারা গেছে। সেখানে তারা গাঁজা পর্যন্ত পৌঁছাতে পেরেছে, তারা চেয়েছে বলে এবং তাদের নিয়ত ছিল বলে সেই মানুষগুলোর কাছে তারা খাদ্য পৌঁছে দিতে পেরেছে।

BHALO’র উপদেষ্টা তানভীর আহম্মেদ টিটু বলেন, এখানে দুস্থদের জন্য হেলথ ক্লিনিক হচ্ছে। আপাতত ডাক্তার রোগী দেখবে। যদি চিকিৎসার সাথে সাথে যদি ঔষুধও-পত্রেরও দরকার হয়। সেটাও এখান থেকে ব্যবস্থা করা হবে। ভবিষ্যতের জন্য যে পরিকল্পনাটা আছে তা আপনাদের সহযোগিতা এবং দোয়ার মাধ্যমে বাস্তবায়ন হবে বলে বিশ্বাস করি। এখানে থাকবে ‘ভালো একাডেমি’। এটি ভালো’র একটি অঙ্গ সংগঠন হিসাবে আত্ম-প্রকাশ করছে। যারা স্কুলটি পরিচালনা করছেন, তারা স্কুলটি পরিচালনা করছেন মনের থেকেই। বস্তি এলাকায় গরিব বাচ্চাদের বিনামূল্যে শিক্ষা ব্যবস্থা দেয়ার জন্য। স্কুলটির জন্যে আমার বাবা জায়গা দান করেছেন। পরিচালনায় দায়িত্বরত শিক্ষকরা জায়গায় দেয়ার আরো আগে থেকেই স্কুলটি পরিকল্পনা করছিলেন। এই স্কুলটার সম্পূর্ণ দায়িত্ব ‘ভালো’ নিবে। পরবর্তীতে এখানে যদি কোনো পটেনশিয়াল ছাত্র থেকে থাকে সে দেশে হোক বা দেশের বাহিরে তাকে ‘ভালো’র পক্ষ থেকে আর্থিক সহযোগিতা করা হবে। একজন ভালো স্টুডেন্ট যদি প্রতিষ্ঠিত হতে পারে তাহলে এটাই হবে ‘ভালো ইনকর্পোরেশনের’ সার্থকতা।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি আরিফ আলম দিপু, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম জীবন, নারায়ণগঞ্জ চেম্বার অব কমার্সের পরিচালক ইমতিনান ওসমান অয়ন, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের প্যানেল মেয়র ও কাউন্সিলর আব্দুল করিম বাবু, বাংলাদেশ হোসিয়ারি অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি নাজমুল আলম সজল, বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি লিটন সাহা প্রমূখ।

RSS
Follow by Email