শুক্রবার, এপ্রিল ১৯, ২০২৪
Led02অর্থনীতি

২০৩০ সালের মধ্যে পোশাক খাত থেকে ১০০ বিলিয়ন ডলার রপ্তানি আয় সম্ভব: মোহাম্মদ হাতেম

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ২০৩০ সালের মধ্যে পোশাক শিল্পখাত থেকে ১০০ বিলিয়ন ডলারের পণ্য রপ্তানি আয় লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে বাংলাদেশ। তবে, এর চেয়েও বেশি রপ্তানি করা সম্ভব বলে জানিয়েছে বাংলাদেশের তৈরি পোশাক মালিকদের শীর্ষ সংগঠন বিকেএমইএ‘র নির্বাহী সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম। এর জন্য সরকারের কাছে গ্যাস-বিদ্যুতের সংকট সমাধান, পোর্ট ক্যাপাসিটি বৃদ্ধি, কাস্টমসে নানা রকম জটিলতা নিঃসরণ, এনবিআর এর সহযোগীতার বৃদ্ধে এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে এলিভেটর এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের দাবি জানিয়েছেন।

সোমবার (১১ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে শ্রমিকের তথ্য ডিজিটালাইজেশন সংক্রান্ত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

লেবার ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম (এলআইএমএস) আয়োজনে সেমিনারটি বাস্তবাসনে সহযোগীতা করে নারায়ণগঞ্জ কালকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তর।

বিকেএমইএ‘র নির্বাহী সভাপতি মোহাম্মদ হাতেম বলেন, চিনের সাথে আমেরিকার একটি বাণিজ্য যুদ্ধ চলছে। সেই যুদ্ধের খেসারত দিতে গিয়ে পোশাক শিল্পে চায়না আস্তে আস্তে পিছিয়ে পড়ছে। চায়নার উপর নির্ভশীল ভিয়েতনাম, কম্বোডিয়া, লাওস, মিয়ানমার সেই বাণিজ্য যুদ্ধের কারণে পিছিয়ে পড়ছে। ফলে বাংলাদেশ ছাড়া তাদের যাওয়ার যায়গা নেই।

কম মূল্যে পোশাকের অর্ডার না নেওয়ার পরামর্শ দিয়ে মোহাম্মদ হাতেম বলেন, সারা বিশ্বের গ্রীণ কারখানা এক সাথে করলেও বাংলাদেশের অর্ধেকের সমান হবে না। ভায়ার ও ব্র্যান্ড এখন বাংলাদেশের প্রতি আকৃষ্টি, তাই ভায়ারা এখন কম দামে কাজ করিয়ে নিতে চাইলেও আমরা তা শুনবো না। শুনা উচিৎও হবে না।

সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন কলকারখানা ও প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন অধিদপ্তরের নারায়ণগঞ্জ কার্যালয়ের উপ-পরিচালক ডা. রাজীব চন্দ্র দাস। এছাড়াও নারায়ণগঞ্জের বিভিন্ন শিল্প কারখানার কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

RSS
Follow by Email