শনিবার, এপ্রিল ১৩, ২০২৪
Led03Led06ফতুল্লাসদর

স্বস্তির বৃষ্টিতে ভোগান্তি, পাড়া-মহল্লায় জলজট

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: তীব্র গরমের পর হালকা বৃষ্টিতে স্বস্তি পেয়েছিলো নারায়ণগঞ্জবাসী। তবে সেই স্বস্তি বেশিক্ষণ স্থায়ী হতে পারেনি। গত ২-৩দিন ধরে একটু পর পর বৃষ্টির ফলে নগরীর বিভিন্ন সড়ক ও আবাসিক এলাকায় জলজটের সৃষ্টি করেছে। এতে, ভোগান্তিতে পরেছে জনসাধারণ।

শুক্রবার (৬ অক্টোবর) সকাল থেকে নগরীর বিভিন্ন এলাকা ঘুরে দেখা গেছে এমন চিত্র। জুমার নামাজের আগে থেকেই বৃষ্টি শুরু হয়। ফলে অনেককেই ভিজে ভিজে মসজিদে যেতে দেখা গেছে। নামাজ শেষেও বৃষ্টি না থামায় মসজিদের ভেতরেই অপেক্ষা করেন অনেকে। কেউ আবার ছুটির দিনে বৃষ্টি উপভোগ করতে করতে বাসায় ফেরেন।

তবে, এই বৃষ্টির কারণে সবচেয়ে বেশি ভোগান্তিতে পড়েছে জেলার দিনমজুর ও নিম্ন আয়ের মানুষ। আয় বন্ধ হয়ে যাওয়ায় অনেকেই বৃষ্টি মাথায় নিয়েও বের হয়েছেন কাজের সন্ধানে।

ঢাকা-নারায়ণগঞ্জ লিংক রোডে চলমান কাজ এবং বৃষ্টির কারণে অনেক মুশকিল হয়ে পড়েছে চাষাঢ়া থেকে জেলা পরিষদ পর্যন্ত যান চলাচল। এতে, চরম ভোগান্তিতে পড়ছেন যাত্রীরা।

নগরীর চাষাঢ়ায় দেখা গেছে, বৃষ্টির কারণে সড়কে মানুষের উপস্থিতি অনেকটা কম। রাস্তায় রিকশা নিয়ে বের হওয়া রিকশা চালকরা অধিকাংশই খালি রিকশা নিয়ে এদিক-ওদিক যাত্রী খুঁজে বেড়াচ্ছেন। অনেকে আবার রিকশা রাস্তার পাশে রেখে পলিথিন মুড়ি দিয়ে রিকশায় বসে ঝিমুচ্ছেন।

ভ্রাম্যমাণ সবজি বিক্রেতা থেকে শুরু করে রাস্তায় বিভিন্ন পণ্য বিক্রি করা হকাররাও পড়েছেন সংকটে। ক্রেতা না পেয়ে তাদের দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। জানা গেছে, শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় এদিন পুরো সপ্তাহের তুলনায় তাদের আয় বেশি হয়। কিন্তু টানা বৃষ্টির কারণে তাদের অনেকেই পণ্য নিয়ে বের হতে পারেননি। যারা বের হয়েছেন, তাদের খুব একটা বেচাবিক্রি নেই।

টানা বৃষ্টিতে অন্যান্য শ্রেণি-পেশার মানুষও ভোগান্তিতে পড়েছেন। অনেকেই জরুরি প্রয়োজনে বের হওয়ার পর গন্তব্যস্থলে পৌঁছাতে পোহাতে হয়েছে ব্যাপক বিড়ম্বনা। কেউ ছাতা নিয়ে পায়ে হেঁটে, কেউবা বৃষ্টিতে ভিজেই পৌঁছেছেন গন্তব্যস্থলে। এ ছাড়া বৃষ্টিপাতের কারণে সড়কে মানুষের উপস্থিতিও ছিল কম।

এদিকে আবহাওয়া অধিদফতর জানিয়েছে, আজ থেকে সারা দেশে বৃষ্টিপাতের পরিমাণ কমতে পারে। আগামীকাল শনিবার (৭ অক্টোবর) থেকে আরও কমে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

RSS
Follow by Email