সোমবার, জুন ১৭, ২০২৪
Led02জেলাজুড়েসোনারগাঁ

সোনারগাঁয়ে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, পরিবারের দাবি শ্বাসরোধে হত্যা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সোনারগাঁ পৌর এলাকার ভট্টপুর এলাকায় সালমা বেগম (৩৫) নামে এক গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (২৪ মে) সকালে এক পুকুরে ভাসমান অবস্থায় লাশ উদ্ধার করা হয়। পরিবারের দাবি, পারিবারিক কলহের কারণে গৃহবধূকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে স্বামী।

পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করেছে। এ ঘটনায় স্বামী মোহাম্মদ রূপচাঁন ও গৃহবধূর ভাই সুলতানকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

জানা যায়, সোনারগাঁ পৌরসভার তাজপুর গ্রামের সালাউদ্দিন মিয়ার মেয়ে সালমা বেগমের সাথে ভট্টপুর গ্রামের সোনা মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ রূপচানের ২০০৫ সালে পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। তাদের সংসারে আবদুল্লাহ আরবান কাইফি (১৬) ও খাদিজা আক্তার (৭) নামের সন্তান রয়েছে। ২০২২ সালে মেঘনা গ্রুপে চাকুরির সুবাদে এক মেয়ের সঙ্গে পরকীয়া প্রেমে জড়িয়ে পড়ে মোহাম্মদ রূপচান। ওই মেয়েকে বিয়ে করার জন্য উঠে লাগে। বিষয়টি সালমা বেগম জানার পর থেকে তাদের মধ্যে কলহ সৃষ্টি হয়। কলহের জের ধরে তাদের পরিবারে বিভিন্ন সময়ে ঝগড়া লেগে থাকতো। বৃহস্পতিবার (২৩ মে) রাতেও তাদের মধ্যে ঝগড়া হয়। পরে শুক্রবার সকালে সালমা বেগমের লাশ পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়।

নিহতের স্বজনরা জানান, পরকীয়ার জের ধরে সালমা বেগমকে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে স্বামী রূপচাঁন। হত্যার পর লাশ পুকুরে ফেলে পানিতে ডুবে মারা গেছে বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে। সালমা বেগম সাঁতার জানতেন।

এ বিষয়ে সোনারগাঁ থানার পুলিশ পরিদর্শক (অফিসার ইনচার্জ) এসএম কামরুজ্জামান বলেন, নিহত গৃহবধূর লাশ উদ্ধার করে হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। নিহতের দেহে কোন প্রকার গুরুতর আঘাতের চিহ্ন দেখা যায় নি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট আসলে মৃত্যুর কারণ সঠিকভাবে বলা যাবে। নিহতের স্বজনদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে, আইনী ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন।

RSS
Follow by Email