রবিবার, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
Led06বন্দররাজনীতিশিক্ষা

সেলিম ওসমানের অর্থায়নে মিরকুন্ডী স্কুলে নতুন দুই ভবন

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য সেলিম ওসমানের অর্থায়নে বন্দর উপজেলার মিরকুন্ডী স্কুলে নবনির্মিত দুইটি ভবন উদ্বোধন করা হয়েছে। এই উপলক্ষে শনিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার মিনারবাড়ী এলাকায় অবস্থিত ওই স্কুল প্রাঙ্গনে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মো আক্তারুজ্জামান বাবুলের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সেলিম ওসমান। প্রধান বক্তা হিসেবে তার সহধর্মিনী নাসরিন ওসমানের থাকার কথা থাকলেও অসুস্থতার কারণে তিনি উপস্থিত হতে পারননি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- মিরকুন্ডী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মো আক্তারুজ্জামান বাবুলের সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বন্দর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ রশিদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বি এম কুদরত এ খুদা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিম উদ্দিন প্রধান, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সানাউল্লাহ সানু, বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহাম্মেদ, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন, মুছাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাকসুদ হোসেন, মদনপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান গাজী এম এ সালাম, ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. কামাল হোসেন।

ভবন দুটি উদ্বোধন করেন সেলিম ওসমান। পরে, দোয়া পাঠের মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের শুভ সূচনা করা হয়।

অনুষ্ঠানে স্কুল শিক্ষার্থীদের কবিতা আবৃত্তি, সংগীত পরিবেশন, জাতীয় সংগীত আবৃত্তি দেখে মুগ্ধ হন সেলিম ওসমান। এসময় তিনি শিক্ষার্থীদের সাংস্কৃতিক কর্মসূচি বৃদ্ধির জন্য নিজ অর্থায়ন থেকে ১৫লাখ টাকা বরাদ্দ দেন। এর আগেও, এজন্য আরও ১০ লাখ টাকা বরাদ্দ দিয়েছিলেন সেলিম ওসমান।

অনুষ্ঠানে সেলিম ওসমান বলেন, আমার মনে হয় আমি আমার জীবনে কোন একটি অনুষ্ঠানে এসে সবচেয়ে বেশি শান্তি পেলাম। বন্দরে একটি শিল্পি গোষ্টি বানিয়ে আপনারা এই সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান আরো সুন্দর করবেন। তারা যাতে নারায়ণগঞ্জের মান রাখতে পারে। এর পাশাপাশি খেলা ধুলার ব্যবস্থা রাখবেন।

তিনি আরও বলেন, আমরা স্কুলের মঞ্চে বড় বড় বক্তব্য দিবো না। ডিজিটাল বাংলাদেশ আগেই পাড় হয়ে গেছে। এখন কিন্তু আমরা স্মার্ট বাংলাদেশের পথে। আমি যখন আবার এখানে আসবো, তখন কোন বক্তব্য থাকবে না। মঞ্চে বাচ্চারা থাকবে, বাচ্চাদের অনুষ্ঠান চলবে। নভেম্বরের দিকে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করবেন। রাজনৈতিক কোন অনুষ্ঠান না, বাচ্চাদের জন্য অনুষ্ঠানটি হবে।

সেলিম ওসমান বলেন, একটা মানুষের কয়টা নাতি-নাতনী হতে পারে। আমি যখন একেকটা স্কুলে যাই, তখন পাখির মতো বাচ্চার ছুটে আসে, কারো কথা শুনে না, ‘দাদু এসেছে দাদু এসছে’ বলে; এর থেকে বড় সুখ মানুষ আর কি পেতে পারে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সভাপতি আরিফ আলম দিপু, ২৪নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. আফজাল হোসেন, ১৮নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্না, নারায়ণগঞ্জ কলেজের উপাধ্যক্ষ ড. রুমন রেজা প্রমুখ।

জানা গেছে, একটি ৪তলা ও একটি ২তলা ভবন নির্মানের জন্য প্রায় ৪কোটি টাকা ব্যাক্তিগত অর্থায়ন থেকে বরাদ্দ দেন সেলিম ওসমান।

RSS
Follow by Email