বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪
Led04রাজনীতি

সরকারের পতন ঘটাবো, যাতে কোন শাওনকে জীবন দিতে না হয়: আজাদ

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সহ-সম্পাদক নজরুল ইসলাম আজাদ বলেছেন, শাওন জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির জন্য জাতীয়তাবাদী দলের চেতনাকে ধারণ করে শহীদ হয়েছেন। গত বছরের ১লা সেপ্টেম্বর বিএনপি’র প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালনকালে এই সরকারের পেটুয়া বাহিনী, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও যুবলীগ সম্মিলিতভাবে সেইদিন আমাদের শাওনকে হত্যা করেছে। আমি শাওনের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করছি। আমাদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান শাওনের পরিবারের খোঁজখবর রাখছেন। বিএনপি শাওনের পরিবারের পাশে সবসময়ই আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

নিহত নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবদল কর্মী শাওন প্রধানের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকীতে উপলক্ষে বুধবার (৬ সেপ্টেম্বর) বাদ জোহর ফতুল্লায় নিহত শাওন প্রধানের বাসভবনে আয়োজিত দোয়া মাহফিল ও খাবার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এসব কথা গুলো বলেন।

জেলা যুবদলের আহ্বায়ক সাদেকুর রহমান সাদেক ও শাওন প্রধানের পরিবারের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এসময়ে নিহত শাওন প্রধানের বিদেহী আত্মার মাগফেরাত ও বিএনপি’র চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার আশু রোগমুক্তি কামনা করে মোনাজাত পরিচালনা করা হয়।

আজাদ বলেন, আমি একটি কথাই বলতে চাই বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এদেশের বীর কোটি মানুষের স্পন্দন দেশনায়ক তারেক রহমানের নির্দেশনায় নারায়ণগঞ্জ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনগুলো আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধ। আপনারা দেখেছেন শাওন জীবন দিয়েছে। এভাবে আমরা অনেকেই এ দলের জন্য জাতীয়তাবাদী চেতনার জন্য জীবন দিতে কার্পণ্য বোধ করব না।

তিনি আরও বলেন, এদেশে জনগণ আপোষকামি না। এদেশের জনগণ ভাষা আন্দোলন করেছে। ভাষা আন্দোলনের মাধ্যমে তা জয় করে নিয়েছেন। এদেশের জনগণ স্বাধীনতা যুদ্ধ করেছেন। পাক হানাদার বাহিনীর বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে দেশকে স্বাধীন করেছিল। ঠিক তেমনি ভাবে দেশনেক তারেক রহমানের নেতৃত্বে এদেশের আপনময় জনগণ আরেকটি যুদ্ধের মাধ্যমে এই স্বৈরাচারী শেখ হাসিনাকে হাত থেকে এদেশের গণতন্ত্রকে উদ্ধার করবে এবং এদেশের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে দিবে ইনশাল্লাহ। এ দেশের নেতৃত্ব দিবেন তারেক রহমান। আমরা কঠিন থেকে কঠিনতর আন্দোলনের মাধ্যমে এই স্বৈরাচারী সরকারের পতন ঘটাবো। যাতে করে আর কোন শাওনকে এভাবে জীবন দিতে না হয়।

দোয়া মাহফিলে আরও উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এড. সাখাওয়াত হোসেন খান, সদস্য সচিব এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক মাশুকুল ইসলাম রাজিব, মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক মনিরুল ইসলাম সজল, ফতুল্লা থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি খন্দকার মনিরুল ইসলাম, ফতুল্লা থানা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এড. আঃ বারী ভুঁইয়া, নারায়ণগঞ্জ সদর থানা বিএনপির সভাপতি মাসুদ রানা, সাধারণ সম্পাদক এড. এইচ এম আনোয়ার প্রধান, বন্দর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি মাজহারুল ইসলাম হিরণ, সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ লিটন, জেলা শ্রমিকদলের সভাপতি মন্টু মেম্বার, জেলা যুবদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক ইসমাইল খান, সদস্য সৈকত হাসান ইকবাল,ফতুল্লা থানা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব রাসেল মাহমুদসসহ জেলা ও মহানগর বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

RSS
Follow by Email