বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
Led03বন্দররাজনীতি

শীতলক্ষ্যায় আরও এক ব্রীজের আশ্বাস সেলিম ওসমানের

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: শীতলক্ষ্যা নদীর নবীগঞ্জ-হাজিগঞ্জ ঘাটে দু‘টি ফেরি দেওয়া সত্যেও একটি চলছে দীর্ঘদিন যাবৎ।

ঠিকাদারের সমালোচনা করে নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা একেএম সেলিম ওসমান বলেছেন, ‘দু‘টি ফেরি সরকার জনগণের জন্য দিয়েছে। কোন টেন্ডারবাজের জন্য ফেরি দেওয়া হয় না। ফেরি যদি খালি চলে তারপরেও চালু রাখতে হবে। আমি এখান থেকে নির্দেশনা দিলাম, ফেরি যেন সব-সময় পাওয়া যায়। ফেরির জন্য যেন একটা রিকশাওয়ালাও কষ্ট না পায়।

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভবনের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে গিয়ে বৃহস্পতিবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে এ কথা বলেন তিনি।

ফেরি ঘাটের ঠিকাদার নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু বলে জানা গেছে।

বন্দরবাসীকে আশ্বস্ত করে সেলিম বলেন, আবার যদি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসে আর আমি যদি বেঁচে থাকি। তাহলে ইনশাআল্লাহ নবীগঞ্জ-হাজীগঞ্জ ঘাটেও ব্রীজ নির্মাণ হবে।

সেলিম ওসমান আরও বলেন, আল্লাহ রহমতে নাসিম ওসমান সেতু আমরা সম্পন্ন করতে পেরেছি। নবীগঞ্জ ফেরি আমরা চালু করেছি। আমরা পিছিয়ে গেছি বিশ্ব মহামারী করোনা ভাইরাস ও ইউক্রেন রাশিয়া কারণে। পিছিয়ে না গেলে এখন বন্দরে একটি ব্রীজ হতো। লাঙ্গলবন্দ পর্য়টন এলাকা ও শান্তিরচরে শিল্পাঞ্চল হতো।

পিছিয়ে পড়ার দোষ নিজের কাদে নিয়ে সেলিম ওসমান বলেন, করোনা ভাইরাসের সময় আমার কিছুই করার ছিল না। আমি শুধু চেয়েছি একটি মানুষও যেন না খেয়ে মারা না যায়। সেই লক্ষ্যে আমাদের চেয়ারম্যান মেম্বাররা ঘরে ঘরে গিয়ে খাবার দিয়েছে।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জে বসবাস করা ৮৫ শতাংশ মানুষ বিভিন্ন জেলা থেকে এসে চাকুরি-ব্যবসা করে জীবিকা নির্বাহ করছে আর বন্দরের ৮৫ শতাংশ মানুষ বন্দরেই বসবাস করছেন। এ জন্য বন্দরের উন্নয়ন নিশ্চই আল্লাহ তায়ালা কবুল করে নিবেন।

বিদ্যালয়ের পরিচালনা পরিষদের সভাপতি আতাউর রহমান মুকুলের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ছিলেন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী নাসরিন ওসমান।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা এমএ রশিদ, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কুদরত এ খুদা, বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিম উদ্দিন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২৩ নং ওয়াডের কাউন্সিলর আবুল কাউসার আশা।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সায়মা খানের সঞ্চালনায় অন্যানদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহমেদ, গোগনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজর আলী, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন প্রধান, ধামঘর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, আলীরটেক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ২৪ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আফজাল হোসেন, ১৮ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর কামরুল হাসান মুন্না প্রমুখ।

RSS
Follow by Email