বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০২৪
Led05জেলাজুড়েফতুল্লারাজনীতি

শামীম ওসমান মাদক মুক্ত করতে মা-বোনদের সাহায্য চেয়েছেন: শাহ নিজাম

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় এনায়েতনগর গ্রাম আওয়ামী লীগের আয়োজনে শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়েছে। রবিবার (৪ ফেব্রুয়ারি) বাদ আছর এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের শাহী মসজিদ এলাকায় এনায়েতনগর গ্রাম পঞ্চায়েত কমিটির পক্ষ থেকে ওই শীতবস্ত্র বিতরণ করা হয়। এ সময় প্রধান অতিথি এনায়েতনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান ও প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম।

এনায়েতনগর গ্রাম পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি বিল্লাল হোসেনের সভাপতিত্বে ও ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের কার্যকরী সদস্য রঞ্জিত মন্ডলের সঞ্চালনায় এ সময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, এভারগ্রীণ ডাইস ক্যামিক্যাল’র ডিরেক্টর মো. আকরাম, অপটিমাম ফ্যাশন ওয়্যার লি. এর এমডি মো, মিজানুর রহমান।

প্রধান আলোচক শাহ নিজাম বলেছেন, আমি মিথ্যার আশ্রয় নিয়ে কিংবা মিথ্যা কথা বলে রাজনীতি করি না। আমার নেতা আপনাদের প্রিয় মানুষ একেএম শামীম ওসমানের কাছ থেকে আমি যতটুকু শিখেছি ততটুকুই সত্যের কথা বলে, মানুষের অধিকার নিয়ে কথা বলে। আজকে আমরা ভালো নেই, কারণ আমাদের দেশ স্বাধীন হয়েছে ৫৩ বছরে পড়লো, কিন্তু এই স্বাধীনের জন্য আমাদের ৩০ লাখ শহীদ জীবন দিলো। বাংলায় কথা বলার জন্য আমার দেশের ২ লাখ মা বোনের ইজ্জত দিতে হয়েছে। স্বাধীনতার এতো বছর পর যদি আপনার একটা কম্বল অথবা লুঙ্গির জন্য বসে থাকেন তাহলে কি আর বলবো যে আপনারা ভালো আছেন। আপনাদের আসল ইতিহাসটা জানতে হবে। বঙ্গবন্ধু যুদ্ধের পর সারে ৩ বছরের মধ্যে দেশটাকে যেভাবে সাজিয়েছিলো যেখানে ক্ষুধা ও দারিদ্রমুক্ত মানুষ থাকবে, কিন্তু ওই রাজাকাররা সেই বঙ্গবন্ধুকেই হত্যা করেছে। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর ওরা ২১বছর দেশ পরিচালনা করলো, দেশের অর্থনীতি লুট করলো, দুর্নিতী করতে করতে এইদেশকে দুর্নিতিতে বাংলাদেশকে ৫বার চেম্পিয়ন করলো। ওরা ২১ বছরে এই দেশটাকে ৫০ বছর পিছিয়ে দিয়েছে। যার ফলে আজকে একটা লুঙ্গি, শাড়ি ও কম্বলের জন্য মানুষ হাহাকার করে।

তিনি আরও বলেন, আপনাদের দোয়ার কারণে আজকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন করে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার গড়ে তুলছে। আমরা নতুন করে বাঁচার স্বপ্ন দেখছি ও নতুন করে বাংলাদেশের স্বপ্ন দেখছি। ভোট আপনার নাগরিক অধিকার, আপনি যাকেই ভোট দেন না কোন, আমি যদি ভালো কাজ করে থাকি তাহলে আমাকে ভোট দিবেন অথবা আমি যদি খারাপ কাজ করে থাকি আমাকে ভোট দিবেন না। এটা আপনার নাগরিক অধিকার, আর এই ভোটের অধিকারের জন্যই কিন্তু ৩০ লাখ মানুষ শহীদ হয়েছেন। আপনি যখন ভোট দিবেন তখন আপনি চেয়ারম্যান মেম্বারদের জিজ্ঞাসা করতে পারবেন ‘আমার রাস্তা ভালো না তুমি ঠিক করছো না কেনো?। আপনার একটা সন্তান প্রতিবন্ধী, আপনি তখন তাকে জিজ্ঞাসা করতে পারবেন ‘সরকার প্রতিবন্ধী ভাতা দিচ্ছে তুমি কেনো আমাদের দিচ্ছো না?। নারায়ণগঞ্জে ভূমিদস্যু মুক্ত, সন্ত্রাস মুক্ত, ইভটিজিং মুক্ত সমাজ গড়ার জন্য আপনাদের সকলের সহযোগীতা চেয়েছেন এমপি শামীম ওসমান। তিনি কিন্তু কোন নেতাকর্মীদের সহযোগীতা চায়নি। তিনি শুধু মা-বোনদের সহযোগীতা চেয়েছেন। যাতে করে আমরা একটা সুন্দর সমাজ চাই।

RSS
Follow by Email