রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪
Led01বিশেষ প্রতিবেদনরাজনীতি

শামীম ওসমানে পর এবার মৃত্যুর সংবাদ দিলেন মেয়র আইভী

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে ভাই-বোনের রাজনীতির উত্তর-দক্ষিন বহুল আলোচিত। জেলার বাহিরেও আছে প্রভাবশালী সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ও মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী নানা আলোচনা-সমালোচনা। নানা ইস্যুতে নারায়ণগঞ্জের সংবাদ মাধ্যমে শীর্ষ শিরোনামে থাকেন এই ভাই-বোন। দ্বাদশ জাতীয় নির্বাচন থেকে পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন সভা সমাবেশে এমপি শামীম ওসমান নিজের মৃত্যুর সংবাদ দিয়েছেন। মৃত্যুকে সহজভাবে মেনে নিয়ে ভালো কাজ করার অঙ্গিকার করেছেন। এবার সেই একই সুরে কথা বলতে শোনা গিয়েছে শামীম ওসমানে বোন খ্যাত মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর মুখে।

সর্বশেষ নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছিলেন, আমার যাওয়ার সময় হয়ে গেছে। আমার পরিবারের সদস্যরা এই বয়সেই চলে গেছেন। আমার বয়স ৬২ বছর ৯ মাস। যেকোনো সময় আল্লাহর ডাক আসতে পারে। তাই আল্লাহকে খুশি করে যাওয়া উচিত। প্লিজ আমাকে কাজ করার সুযোগ দিন। মানুষমাত্রই ভুল হয়। আমি কোনো ভুল করে থাকলে ক্ষমা করে দিয়েন। মৃত্যুর পরে যেন সূরা ফাতিহা পড়ে আমার জন্য দোয়া করে মানুষ, এটিই আমার চাওয়া।

অপর দিকে, শুক্রবার (২ ফেব্রুয়ারি) বন্দর উপজেলায় আয়োজিত এক সাংস্কৃতিক কর্মী ও সূধীজনের মিলন মেলায় নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, ছোট বেলায় দারিয়াবান্ধা খেলাসহ নানা রকমের খেলা খেলতাম। এখন অনেক মিস করি। আমি খুব বেশী সাতার কাটতে পছন্দ করতাম। এইজন্য পানি দেখলে আমার নামতে ইচ্ছা করে। সেই পরিবেশ আর এখন নেই। সেই পরিবেশ আমি কিভাবে ফেরত দিবো। সে পরিবেশ ফেরত দিতে গিয়ে কখনো খাল কাটতে যাই, মাঠ বানাতে যাই। বিভিন্নভাবে জায়গা উদ্ধার করে কাজকর্ম করতে চাই। মাঝে মাঝে ভুল বুঝাবুঝি হয়, মনোমালিন্য হয়, ঝগড়াঝাটি তো আছেই। আমি যখন থাকবো না, তখন হয়তো এগুলো মনে রাখবেন। আমার মাঝে মাঝে মনে হয়, আমি হয়তো বেশীদিন বাচঁবো না খুব তারাতাড়ি মারা যাবো। কারণ ইদানিং কাজের এতবেশী চাপ, আমি নিজেও ক্লান্ত হয়ে যাই।

এদিকে, ভাই সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ও বোন মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর বক্তব্য নারায়ণগঞ্জে বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আলোচনার ঝড় তুলছে। তাদের এমন বক্তব্য গুরুত্ব নিয়ে গ্রহন করছে নারায়ণগঞ্জবাসী।

RSS
Follow by Email