মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
Led02রাজনীতি

শামীম ওসমানের সমর্থনে নগরীতে আ.লীগের নেতাকর্মীদের ঢল

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পরপরই নারায়ণগঞ্জে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে আনন্দ মিছিল করেছেন সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের সমর্থিত আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতারা। সেই সঙ্গে তফসিল ঘোষণা করায় নির্বাচন কমিশনকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানিয়ে নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার (১৬ নভেম্বর) বিকালে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার থেকে শুরু করে বঙ্গবন্ধু সড়কের কালির বাজার, ব্যাংকের মোড়, ২নং রেলগেইট, ডিআইটি এলাকা প্রদক্ষিণ করে চাষাড়া বিজয়স্তম্ভে এসে ওই আনন্দ মিছিল শেষ করে। পরে এখানে একটি সংক্ষিপ্ত সভা করে নেতাকর্মীরা।

আনন্দ মিছিলে শেখ হাসিনাকে ৫ম বারের মতো প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত করতে অঙ্গীকার প্রকাশ করে নেতাকর্মীরা। এছাড়া নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের পক্ষে নৌকা মার্কায় ভোট চেয়ে বিভিন্ন স্লোগান দেয়া হয়। সংক্ষিপ্ত সভায় নেতাকর্মীরা বিএনপি-জামাতের হরতাল-অবরোধ কর্মসূচিকে অবৈধ ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ড বলে ঘোষণা করেছেন। এ সময় নেতা কর্মীরা বলেন, যদি বিএনপি-জামাত কোন অরাজকতা করার চেষ্টা করে, তাহলে আওয়ামী লীগ সেটাকে প্রতিহত করে মানুষের যানমাল রক্ষা করবে।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজামের নেতৃত্বে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠিক সম্পাদক মীর সোহেল, নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু, সাফায়েত আলম সানি, নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জিএম আরমান, নারায়ণগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক আব্দুল কাদির, নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ২ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর বাদল, নারায়ণগঞ্জ জেলা যুবলীগ নেতা জানে আলম বিপ্লবসহ নেতৃবৃন্দ।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম বলেন, আমাদের আজকের এই শান্তির মিছিলের বার্তা হচ্ছে জনগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা। এছাড়া প্রধান নির্বাচন কমিশনার দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের যে তফসিল ঘোষণা করেছেন, সেটাকে আমরা স্বাগত জানাই। আমাদের আজকের এই শান্তির মিছিল জননেতা একেএম শামীম ওসমানের যে নির্দেশনা পেয়েছি, সেটা হলো। আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সুন্দর এবং সার্থক করার জন্য, যারা নির্বাচন বাতিল করতে চায়, বর্জন করতে চায়, দেশের মধ্যে অস্থিরতা সৃষ্টি করতে চায়। তাদেরকে প্রতিরোধ করার জন্য, রাজপথে মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য, মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য এবং আগামী নির্বাচনকে সুন্দর এবং সার্থক করার জন্য, ভোটের মাধ্যমে জননেত্র শেখ হাসিনাকে নেতৃত্বে আগামী দিনে যাবে সুন্দর একটি বাংলাদেশ হয়। সেই স্বপ্ন বাস্তবায়ন করার জন্য, বঙ্গবন্ধুর আদর্শে সোনার বাংলা গড়ার জন্য আমরা আনন্দ মিছিল করে যাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, আমাদের বর্তমানে প্রধান কাজই হলো, দেশের সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে মাঠে থাকা। এবং আগামী দিনের নির্বাচনে জনগণকে সম্পৃক্ত করে দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সফল করার জন্য মানুষকে একত্রিত করাই আমাদের এখন লক্ষ।

নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু বলেন, এখন আমাদের অনেক সতর্ক থাকতে হবে। অনেকেই চাইবে আমাদের মধ্যে লোক ঢুকিয়ে বিশৃংঙ্খলা সৃষ্টি করতে। আপনারা তাৎক্ষনিক ভাবেই তাদের ধরার চেষ্টা করবেন। যারা আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করবে, তাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার থাকবেন। যারাই আগুন সন্ত্রাস করতে তাদের জানিয়ে দিতে হবে।

RSS
Follow by Email