মঙ্গলবার, এপ্রিল ১৬, ২০২৪
Led05ফতুল্লারাজনীতি

শকুনদের থাবা পড়েছে, প্রস্তুত থাকার আহ্বান শামীম ওসমানের

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ‘যে মানুষটা স্বাধীনতা আনলেন, সেই মানুষটাকে আমরা মেরে ফেললাম; তার পুরো বংশকে আমরা মেরে ফেললাম! এত অকৃতজ্ঞ জাতি আমরা? আমার লজ্জা লাগে। আমাদের তো রাজনীতি করার কথাই না। বঙ্গবন্ধু বেঁচে থাকলে বাংলাদেশ জাপানের চেয়ে বেশি উন্নত হতো। জাপানে কি এমন মিটিং-মিছিল হয়? তারা তো কাজ করতে করতেই সময় পায় না। সিঙ্গাপুরের পাসপোর্ট বিশ্বে এক নম্বার। বঙ্গবন্ধু থাকলে আমরাও দেশটাকে ওই স্থানে নিয়ে যেতে পারতাম।’

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৮ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে বুধবার (১৬ আগস্ট) দুপুরে ফতুল্লার মাসদাইর খানকার মোড় এলাকায় আয়োজিত মিলাদ ও দোয়া মাহফিলে অংশ নিয়ে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান এসব কথা বলেন।

শামীম ওসমান বলেন, ওরা দেশটাকে পিছন দিকে নিতে চেয়েছিলো। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর দেশটা পেছন দিকে যেতে শুরু করেছিলো। বঙ্গবন্ধু কন্যা দেশের হাল না ধরলে। একবার ভাবেন তো এই মহিলাটার স্থানে আপনি বা আমি থাকলে কি করতাম? হয়তো পাগল হয়ে যেতাম, নয়তো খুনি হোতাম। উনি এসবের কিছুই হননি। উনি ১৯৯৬ সালে ক্ষমতায় এসে আইনের শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছেন। তিনি প্রচলিত আইনেই তার পিতা ও পরিবারের হত্যার বিচার করেছেন। ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলায় তিনিও যদি মারা যেতেন তাহলে হয়তো আজ মুক্তিযোদ্ধাদের বিচার হতো, যে কোন তারা দেশটাকে স্বাধীন করেছিলেন।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশ পৃথিবীর মানচিত্রে আজ মাথা উঁচু করে দাঁড়িয়েছে। পৃথিবীর ৩৩টা দেশে নির্বাচন হচ্ছে কোথাও কোন কথা নাই, কিন্তু বাংলাদেশের নির্বাচন নিয়ে অনেকে এসে হাজির হয়েছে। বিএনপি-জামাত ওই মোরলদের এখানে ডাকছে। কারণ বাংলাদেশকে তারা আবারো আঘাত করতে চায়। এটার প্রমান, বঙ্গবন্ধু কন্যা পরিস্কার ভাবে সংসদে বলেছেন।

তিনি বলেন, আগস্টের শেষ দিক থেকে এমন কিছু ঘটানোর চেষ্টা করা হবে যাতে করে বাংলাদেশ পৃথিবীর মানচিত্রে আর মাথা উঁচু করে যাতে দাঁড়াতে না পারে। বিশ্বাস করেন, শেখ হাসিনা এখন আওয়ামী লীগের সম্পদ না; তিনি এখন বাংলার মানুষের ভবিষ্যত। আমাদের ছেলে-মেয়েদের স্বপ্ন বাস্তবায়নের নাম হচ্ছে শেখ হাসিনা। তিনি স্বপ্ন দেখান ও বাস্তবায়ন করেন। আমাদের ভৌগলিক অবস্থানের কারণে আবারো আমাদের উপর শকুনদের থাবা পড়েছে। আপনাদের সকলকে প্রস্তুত থাকার জন্য আহ্বান করবো।

শামীম ওসমান বলেন, নারায়ণগঞ্জ সব সময় ভূমিকা রেখেছে, আগামীতেও ভূমিকা রাখবে। তাই, আগস্টের শেষ দিক থেকে আমরা সকলের সাথে বসা শুরু করবো। জানি না আগামীকাল বেঁচে থাকবো কি না। তবে যদি মারা যাই তাহলে দেশটাকে বাচিয়েন। রাজনীতি একটা এবাদত। কেউ রাজনীতি করে আখের গোছানোর জন্য, কেউ রাজনীতি করে মানুষের সেবা করার জন্য। একটা কথা মনে রাখবেন ক্ষমতা চিরস্থায়ী না।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ্ নিজাম, ফতুল্লা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও কাশিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সাইফউল্লাহ বাদল, ফতুল্লা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও বক্তবলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলী প্রমুখ।

RSS
Follow by Email