রবিবার, জুন ১৬, ২০২৪
জেলাজুড়েবন্দর

লেগুনা চালককে পিটিয়ে হত্যা, বন্দর থেকে আটক ২

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে অভিযান চালিয়ে এক হত্যাকান্ড মামলার ২ আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১। শনিবার (২৫ নভেম্বর) বন্দরের মদনপুর বাগদোবাড়ী এলাকা হতে আসামীদের আটক করা হয়। আটককৃত আসামীরা বন্দরের বাসিন্দা।

শনিবার (২৫ নভেম্বর) প্রেরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানান র‌্যাব-১১ এর মিডিয়া অফিসার এএসপি সনদ বড়ুয়া। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, চলতি বছরের ২ আগস্ট রাত পৌনে এগারোটার দিকে পান্থপথে বসুন্ধরা সিটি মার্কেটের সামনের রাস্তায় একটি লেগুনাকে ঠেলে নিয়ে যাচ্ছিলেন চালক মো. সবুজ খান (৩৫) ও তার সহকর্মীরা। যাওয়ার সময় একটি প্রাইভেট কারের সঙ্গে ধাক্কা লাগায় প্রাইভেটকার আরোহীরা লেগুনা চালককে পিটিয়ে হত্যা করে। নিহতের সহকর্মী মো. জামাল ও মিন্টু জানান যে, লেগুনা গাড়িটিতে গ্যাস শেষ হয়ে যাওয়ায় তারা তিন জন ঠেলে বসুন্ধরা সিটির সামনে দিয়ে কাওরান বাজারস্থ মাছের আড়ত হয়ে গ্যাস পাম্পের দিকে যাচ্ছিল। পথিমধ্যে বসুন্ধরা সিটির সামনে রাস্তায় একটি প্রাইভেট কারের সাথে সামান্য ধাক্কা লাগে। এতে প্রাইভেট কারের আরোহীরা গাড়ি থেকে নেমে এলোপাতাড়ি কিল-ঘুষি মেরে লেগুনা চালককে অজ্ঞান করে ফেলে চলে যায়। পরে ভিকটিমকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাতেই পরীক্ষা নিরীক্ষার পর ভিকটিমকে মৃত ঘোষণা করেন। সহকর্মীরা আরোও বলেন, প্রাইভেটকারের লোকজন সবাই মদ্যপ অবস্থায় ছিল। এ ঘটনায় ডিএমপি ঢাকার তেজগাঁও থানায় একটি নিয়মিত মামলা রুজু হয়। ঘটনার পর উক্ত আসামীগণ আত্মগোপনে ছিল।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, হত্যাকান্ডের ঘটনার সাথে জড়িত পলাতক আসামীদেরকে গ্রেফতারের লক্ষ্যে র‌্যাব-১১, সদর কোম্পানি, নারায়ণগঞ্জ এর একটি গোয়েন্দা টীম তাদের অবস্থান সনাক্ত ও গ্রেফতারের চেষ্টা করেন। পরবতীর্তে শনিবার সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে মদনপুর হতে আসামীদের আটক করা হয়। আসামীরা হলেন, ১। মদনপুরের সাইফুল ইসলাম পলাশ, পিতা-মোমিন আলী ২। যাত্রাভিটার সজীব অর্নব, পিতা-হাবিব উল্লাহ। গ্রেপ্তারকৃত আসামীদের পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রমের জন্য ডিএমপি, ঢাকার তেজগাঁও থানার নিকট হস্তান্তর করা হয়।

RSS
Follow by Email