শনিবার, জুন ২২, ২০২৪
Led04অর্থনীতিজেলাজুড়ে

যে সকল পণ্যের দাম বাড়ছে-কমছে

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: জাতীয় সংসদের অভিযানে ২০২৪-২৫ অর্থবছরের জন্য ৭ লাখ ৯৭ হাজার কোটি টাকার বাজেটের প্রস্তাব করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (৬ জুন) অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী এ বাজেট প্রস্তাব করেন। প্রস্তাবিত এ বাজেটে বেশ কিছু পণ্যের আমদানিতে শুল্ক কমানো হয়েছে। একইসঙ্গে বেশ কিছু পণ্যের আমদানিতে শুল্ক বাড়ানো হয়েছে।

ফলে বাজেট পাস হলে এসব পণ্যের দামে পরিবর্তন আসবে। যেসব পণ্যের দাম বাড়বে:

বিড়ি-সিগারেট-জর্দা

প্রস্তাবিত বাজেটে (২০২৪-২৫) তামাকজাত পণ্যের ব্যবহার কমানো এবং রাজস্ব আয় বৃদ্ধির লক্ষ্যে বাড়ছে বিড়ি-সিগারেট ও জর্দার দাম। সিগারেট ও এ জাতীয় পণ্যের সম্পূরক শুল্কের হার ৬৫ শতাংশের পরিবর্তে ৬৬ শতাংশ নির্ধারণ করা হচ্ছে। এছাড়া সিগারেট বা বিড়ি পেপারের স্থানীয় উৎপাদন পর্যায়ে মূসকের হার সাড়ে ৭ শতাংশের পরিবর্তে ১৫ শতাংশ নির্ধারণ হচ্ছে।

এছাড়া প্রতি দশ গ্রাম জর্দার সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ৪৮ টাকা এবং প্রতি দশ গ্রাম গুলের সর্বোচ্চ খুচরা মূল্য ২৫ টাকা নির্ধারণ করার প্রস্তাব করা হয়েছে বাজেটে।

মোবাইল সিম ও কলরেট

মোবাইল ফোনের সিম/রিম কার্ড ব্যবহারের মাধ্যমে প্রদত্ত সেবার বিপরীতে বিদ্যমান সম্পূরক শুল্ক ১৫ শতাংশের পরিবর্তে ২০ শতাংশ নির্ধারণ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি সিম কার্ড/ই-সিম সরবরাহের বিপরীতে বিদ্যমান মূসকের পরিমাণ ২০০ টাকার পরিবর্তে ৩০০ টাকা নির্ধারণ করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

মোবাইল ফোনের কলরেটের ওপর ১৫ শতাংশ ভ্যাট এবং ১৫ শতাংশ সম্পূরক শুল্কের সঙ্গে নতুন করে আরও ৫ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। এর সঙ্গে ভোক্তাদের ১ শতাংশ সারচার্জ দিতে হবে।

যে কারণে একজন গ্রাহক এখন ১০০ টাকার রিচার্জ করলে ভ্যাট ও সম্পূরক শুল্ক কেটে নেওয়ার পর ৬৯ টাকা ৩৫ পয়সার কথা বলতে পারবেন।

কাজু বাদাম

কাজু বাদাম আমদানিতে আমদানি শুল্ক ১৫ শতাংশ হতে কমিয়ে ৫ শতাংশ করা হয়েছে। তবে দেশে উৎপাদিত কাজু বাদামেরর বাজার বিকাশের উদ্দেশ্যে কাজু বাদাম আমদানিতে ১০ শতাংশ রেগুলেটরি ডিউটি আরোপ করা হয়েছে।

আইসক্রিম

সকল ধরনের আইসক্রিমের ওপর বিদ্যমান সম্পূরক শুল্ক হার ৫ শতাংশের পরিবর্তে ১০ শতাংশ নির্ধারণ করা হচ্ছে।

কোমল পানীয়

কার্বনেটেড বেভারেজে সম্পূরক শুল্ক হার ২৫ শতাংশের পরিবর্তে ৩০ শতাংশ নির্ধারণের প্রস্তাব করেছেন অর্থমন্ত্রী। এতে কোমল পানীয়ের এর জন্য নির্ধারিত মাত্রার উপাদান অপেক্ষা ভিন্নতর মাত্রার উপাদান সম্বলিত পানীয়ের ক্ষেত্রে সম্পূরক শুল্ক হার ৩৫ শতাংশের পরিবর্তে ৪০ শতাংশ নির্ধারণ করা হচ্ছে।

ফ্রিজ-এসি

দেশে ফ্রিজ-এসি উৎপাদনে ব্যবহৃত কম্প্রেসার ও সব ধরনের উপকরণের ভ্যাট এবং শুল্ক বাড়ানো হচ্ছে। তাই এসি ও ফ্রিজের দাম বাড়বে।

এলআরপিসি তার

এলআরপিসি তার উৎপাদনকারী শিল্পের কাঁচামাল ওয়্যার অব আইরন বা নন-অ্যালয় স্টিল আমদানিতে আমদানি শুল্ক শতাংশ হতে বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ ধার্য করার প্রস্তাব করা হয়েছে। এফলে নির্মাণখাতে খরচ বাড়বে।

গাড়ি কনভার্সনে যন্ত্রপাতি

গাড়ি সিএনজি-এলপিজিতে কনভার্সনে ব্যবহৃত কিট, সিলিন্ডার ও অন্য যন্ত্রপাতি, যন্ত্রাংশ আমদানিতে শুল্ক ৩ শতাংশ থেকে বাড়িয়ে ৫ শতাংশ করা হচ্ছে। এতে গাড়ি কনভার্সন খরচ বাড়বে।

জেনারেটর

লোডশেডিং মোকাবিলায় বাসাবাড়ি বা শিল্পে জেনারেটর সংযোজন ও উৎপাদনে ব্যবহৃত উপকরণ বা যন্ত্রাংশ আমদানিতে এক শতাংশ শুল্ক আরোপ করা হচ্ছে। যে কারণে দেশের বাজারে জেনারেটরের দাম বাড়বে।

ম্যাকরেল মাছ

ম্যাকরেল মাছ আমদানিতে ১৫ শতাংশ ভ্যাট ও ৫ শতাংশ অগ্রিম আয়কর যোগ করায় দাম বাড়বে।

পর্যটন

অ্যামিউজমেন্ট পার্ক, থিম পার্কে মূসক ৭ দশমিক ৫ শতাংশের পরিবর্তে ১৫ শতাংশ করার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। ফলে বাড়বে ঘোরাঘুরি তথা পর্যটন খরচ। নিলামকারী সংস্থা, সিকিউরিটি সার্ভিস ও লটারির টিকিটে মূসক ১০ শতাংশের পরিবর্তে ১৫ শতাংশ করা প্রস্তাব করা হয়েছে।

নির্মাণ খরচ

ইটের ক্ষেত্রে বিদ্যমান সুনির্দিষ্ট কর ১০ থেকে ২০ শতাংশ করার প্রস্তাব করা হয়েছে। ফলে বাড়বে নির্মাণ খরচ।

এছাড়া শিল্পে ব্যবহৃত ৩৩টি আইটেমের কাঁচামাল আমদানিতে এক শতাংশ শুল্ক বসানো হচ্ছে। এসব পণ্যের দাম বাড়বে – অপরিশোধিত ভোজ্যতেল, টিউব লিসেনিং জেল, কৃত্রিম কোরান্ডাম, অ্যালুমিনিয়াম অক্সাইড, প্যাট চিপস উৎপাদনে ব্যবহৃত ইথাইলিন গ্লাইকল, পানির মোটর উৎপাদনকারী অ্যালুমিনিয়াম ইনগট, ফ্লোরোসেন্ট বাতির যন্ত্রাংশ, কাচ, প্লাস্টিক, এলইডি টেলিভিশন উৎপাদনে ব্যবহৃত এলইডি বাল্ব, বাতি উৎপাদনে ব্যবহৃত অ্যালুমিনিয়াম অ্যালয় প্রভৃতি।

এছাড়াও নির্দিষ্ট কিছু পণ্যে দাম কমছে। যেসব পণ্যের দাম কমবে:

বিদেশি গুঁড়ো দুধ

বাজেটে প্যাকেটজাত গুঁড়া দুধ আমদানিতে ২০ শতাংশ সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহার করা হয়েছে। ফলে বাজারে গুঁড়া দুধের দাম কমছে।

চকলেট

চকলেট আমদানিতে শুল্ক ২৫ শতাংশ কমছে। ফলে দাম কমছে চকলেটের।

কার্পেট

কার্পেট তৈরির প্রধান কাঁচামাল পলিপ্রোপাইলিন ইয়ার্ন আমদানির শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ৫ শতাংশ করা হয়েছে। এতে দেশে তৈরি কার্পেটের দাম কমছে।

ল্যাপটপ

ল্যাপটপ আমদানিতে শুল্ক বাড়ানো হলেও ভ্যাট প্রত্যাহার করা হয়েছে। এতে ৩১ শতাংশের পরিবর্তে ২০ দশমিক ৫০ শতাংশ শুল্ককর দিতে হবে বিধায় ল্যাপটপের দাম কমতে পারে।

দেশে তৈরি মোটরসাইকেল

দেশে তৈরি মোটরসাইকেলের সিকেডি ইঞ্জিনের পার্টসের আমদানি শুল্ক কমছে। এতে দেশে তৈরি মোটরসাইকেলের দাম কমবে।

উড়োজাহাজ রক্ষণাবেক্ষণ

অ্যাভিয়েশন খাতের উত্তরণে ইঞ্জিন-প্রপেলার আমদানিতে কমছে মূসক। ফলে উড়োজাহাজ রক্ষণাবেক্ষণে কমবে খরচ।

মিথানল

বাল্ক আকারে মিথানল আমদানির ক্ষেত্রেও আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ হতে কমিয়ে ৫ শতাংশ করা হচ্ছে।

পলিপ্রোপাইলিন ইয়ার্ন

কার্পেট উৎপাদনকারী শিল্পের কাঁচামাল পলিপ্রোপাইলিন ইয়ার্ন আমদানিতে আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ হতে কমিয়ে ৫ শতাংশ নির্ধারণ করা হচ্ছে।

ম্যাংগানিজ

ফেরো এলয় উৎপাদনকারী শিল্পের কাঁচামাল ম্যাংগানিজ আমদানিতে আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ হতে কমিয়ে ৫ শতাংশ করা হচ্ছে।

ডেঙ্গুর চিকিৎসাসামগ্রী

ডেঙ্গু চিকিৎসার জন্য বিভিন্ন ধরনের কিটসহ সব ধরনের পরীক্ষা সরঞ্জামের ওপর শুল্ককর রেয়াত সুবিধা দেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে।

আমদানিকৃত কিডনি ডায়ালাইসিস ফিল্টার ও সার্কিট

কিডনি রোগী চিকিৎসার অন্যতম সরঞ্জাম ডায়ালাইসিস ফিল্টার ও ডায়ালাইসিস সার্কিট পণ্যের আমদানি শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে কমিয়ে এক শতাংশ করা হয়েছে।

ক্যানসার চিকিৎসা সরঞ্জাম

ক্যানসার রোগীর চিকিৎসার ব্যবহৃত কিছু সরঞ্জাম রেয়াতি সুবিধায় যুক্ত করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

লোহা জাতীয় পণ্য

রড, বার ও এঙ্গেল তৈরির কাঁচামাল ম্যাঙ্গানিজ আমদানিতে শুল্ক ১০ শতাংশ থেকে কমিয়ে পাঁচ শতাংশ করা হয়েছে। এতে লোহা জাতীয় পণ্যের দাম কমতে পারে।

বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম

সুইচ-সকেট, হোল্ডার উৎপাদনে ব্যবহৃত কাঁচামালের আমদানি শুল্ক কমানো হয়েছে। ইলেকট্রিক মোটর উৎপাদনে ব্যবহৃত যন্ত্রাংশ আমদানিতে রেয়াতি সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। এ কারণে ইলেকট্রিক মোটরের দাম কমছে।

RSS
Follow by Email