রবিবার, জুন ২৩, ২০২৪
Led05ফতুল্লারাজনীতি

যে কোন আন্দোলনে না.গঞ্জ অগ্রানী ভূমিকা পালন করেছে: শেখ হাসিনা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘স্বাধীনতার সংগ্রামের অনেক ইতিহাস এই নারায়ণগঞ্জ ধারণ করে আছে। তাই এখানে আসতে পেরে আমি সত্যি আনন্দিত। যখনই আমরা যে কোন আন্দোলনের ডাক দিয়েছি, নারায়ণগঞ্জ সব সময় অগ্রানী ভূমিকা পালন করেছে।’

বৃহস্পতিবার (৪ জানুয়ারি) বিকেল ৩ টায় ফতুল্লার ইসদাইরে অবস্থিত একেএম শামসুজ্জোহা স্টেডিয়ামে আওয়ামী লীগের শেষ নির্বাচনী জনসভায় অংশ নিয়ে তিনি একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগামী ৭জানুয়ারী নির্বাচনকে সামনে রেখে আমরা এখানে হাজির হয়েছি। নারায়ণগঞ্জ আমাদের ইতিহাসের স্বাক্ষ্য রাখে। আমার এখনো মনে আছে, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ‘৬দফা’ ঘোষণা করার পর মিটিং করেছিলেন এই আদমজিতে। এই মিটিং শেষ করে যখন তিনি ঢাকায় ফেরেন, ওইদিন রাতেই তাকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার করে তাকে কেন্দ্রীয় কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। ১৯৬৮সালে ১৮ই জুন তাকে কারাগার থেকে নিয়ে ক্যান্টনমেন্টে নিয়ে বন্দি করে রাখা হয়। আমার মনে আছে, এই নারায়ণগঞ্জ থেকে হাজার হাজার শ্রমিক এবং স্থানীয় জনগন পায়ে হেটে ঢাকায় পৌছে গিয়েছিলো।

২০০১ সালে নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ অফিসে বোমা হামলার কথা স্মরণ করে শেখ হাসিনা বলেন, এই নারায়ণগঞ্জ, রক্তাক্ত নারায়ণগঞ্জ বটে। আপনারা জানেন, ২১ বছর পর আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে। ২০০১ সালে ১৫ জুলাই প্রথম শান্তিপূর্ণ ভাবে ক্ষমতা হস্তান্তর করি। কিন্তু এর পরেই নারায়ণগঞ্জ রক্তাক্ত হয়। ১৬ই জুন নারায়ণগঞ্জ আওয়ামী লীগ অফিসে বোমা হামলা চালানো হয়। সেখানে আমাদের ২০জন নেতাকর্মী মারা যায়। সেই হামলায় অনেকে কোন মতে বেঁচে আছে, অনেকে পঙ্গু হয়ে আছে। ওই দিনের সকল নিহতের আত্মার মাগফেরাত কামনা করি। যারা বেঁচে আছে, তাদের প্রতি আমার সহমর্মিতা জানাই।

নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই এর সভাপতিত্বে জনসভায় উপস্থিত ছিলেন- সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, বাংলাদেশ যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস পরশ, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তর সম্পাদক বিপ্লব বড়ুয়া, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী, নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী গোলাম দস্তগীর গাজী, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নজরুল ইসলাম বাবু, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আবদুল্লাহ আল কায়সার, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী একেএম শামীম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের জাতীয় পার্টি মনোনীত প্রার্থী একেএম সেলিম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু চন্দনশীল।

আরও উপস্থিত ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদল, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান সালমা ওসমান লিপি, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, সাংগঠনিক সম্পাদক জাকিরুল আলম হেলাল, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন ভুইয়া সাজনু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপুসহ জেলা-মহানগর আওয়ামী লীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

RSS
Follow by Email