বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০২৪
রাজনীতি

যুক্তরাষ্ট্রে ঘটনায় যে কথা বললেন শামীম ওসমান

লাইভ নারায়ণগঞ্জ:  যুক্তরাষ্ট্রের জ্যাকসন হাইটে সম্প্রতি ঘটে যাওয়া ঘটনা নিয়ে মুখ খুলেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমান। তিনি অনুসারীদের শান্ত হওয়ার পাশাপাশি আল্লাহ ও জনগণের উপর বিচারের দায়িত্ব দিয়েছেন।

শনিবার (১৫ জুলাই) রাতে গণমাধ্যম কর্মীদের প্রশ্নের জবাব দিতে মুখ খুলেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের জনপ্রিয় সংসদ সদস্য। এর আগে ঘটনার পর থেকে শামীম ওসমানের হোয়াটসঅ্যাপে বার্তা পাঠিয়ে গণমাধ্যম কর্মীরা প্রতিক্রিয়া জানতে চান।
ঘটে যাওয়া ঘটনা নিয়ে গণমাধ্যম কর্মীদের হোয়াটসঅ্যাপে এক ভয়েস ম্যাসেজে শামীম ওসমান তার প্রতিক্রয়ায় বলেন, দেখেন আপনার প্রশ্নের উত্তরে আমি একটা কথা বলতে চাই যে যারা বাংলাদেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রর মতো একটা সভ্য দেশে এসেছে এবং সেখানে এসে তারা সভ্যতটা শেখেনি। যুক্তরাষ্ট্রর মতো একটি সভ্য দেশে যে ঘটনাটি ঘটিয়েছে সেটা অবশ্যই দু:খজনক ঘটনা। তবে তাদের নেতা তাদের যে শিক্ষা দিয়েছেন তাদের কাছে এর চেয়ে ভালো কিছু আশা করা যায় না।
ভয়েস ম্যাসেজে শামীম ওসমান আরো বলেন, বিষয়টি হচ্ছে আমি ওখানে একাই ছিলাম। আমার সাথে আমার এক ছোট ভাই গাড়ী চালাচ্ছিলেন। আমি হয়তো গাড়ি থেকে নামতামই না। তারা যদি শুধু আমাকে গালি দিত, আমি তাদের সামনেই যেতাম না। যখন তারা জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনাকে নিয়ে অত্যন্ত বাজে মন্তব্য করেছে। তখন আমাকে নামতেই হয়েছে। কারণ আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। যা হোক এ বিষয় নিয়ে আমাদের নারায়ণগঞ্জসহ সব জায়গায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। আমি সবার কাছে অনুরোধ করব যে, এতে আমাদের উত্তেজিত হওয়ার কিছু নাই। আমরা বঙ্গবন্ধুর আদর্শের সৈনিক। জাতির পিতার কন্যা শেখ হাসিনা আমাদের নেত্রী আমাদের এই শিক্ষা দেন নাই। তাই সবাইকে শান্ত থাকার অনুরোধ করব এবং দয়া করে আরেকটি অনুরোধ করব যে, এই বিচারের ভার জনগণের কাছেই ছেড়ে দেয়া উচিত।
তিনি আরো বলেন, সেখানে ঘটনার দিন যেটা আমার কাছে ভালো লেগেছে সেটা হচ্ছে যে, যেহেতু আমি একা ছিলাম। তারা অনেকে লোক ছিল। কিন্তু প্রতিবাদ আমি একা করি নাই। প্রতিবাদ করেছেন জ্যাকসন হাইটে যারা বিভিন্ন দোকানের মালিকরা আছেন। তারা নিজেরাই শেষ পর্যন্ত প্রতিবাদ করেছেন এবং একপর্যায়ে প্রতিরোধ করেছেন। তাই তারা ওখান থেকে পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়েছে। জনগণ যে আমাদের সাথে আছে দেশে এবং বিদেশে এটি তারা প্রমাণিত হয়েছে। তাই আমি আপনাদের গণমাধ্যম কর্মীদের মাধ্যমে সবাইকে অনুরোধ জানাচ্ছি সবাই যেন একটু শান্ত থাকেন।
RSS
Follow by Email