শুক্রবার, এপ্রিল ১৯, ২০২৪
ফতুল্লা

ভোলাইলে বিস্ফোরণ কী ভা‌বে, প্রত্যক্ষদর্শীরা জানালেন

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লার কাশিপুর ইউনিয়নের ভোলাইল এলাকায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশার (ইজিবাইক) শোরুমে বিস্ফোরণের ভয়াবহ অভিজ্ঞতা জানিয়েছে প্রত্যক্ষদর্শীরা। শনিবার সকাল পৌনে ৯টার দিকে এই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে৷

শোরুম ভবনের সামনেই অবস্থিত চায়ের দোকানদার জানান, আমি এই পাশের চায়ের দোকানে বসা ছিলাম। হটাৎ বিকট আওয়াজ শুনতে পাই। তাকিয়ে দেখি এক সেকেন্ডর মধ্যে সব তছনছ হইয়া গেছে। দৌড়াইয়া, গাড়িতে উইঠা, যে যেমনে পারছে হাসপাতালে গেছে। একজন আমার দোকানেও আসছিলো, গায়ে আগুনসহ, তার জামা ছিড়া আগুন নিভাইছি; পরে সে হাসপাতালে চইলা গেছে। এমন আওয়াজ হইছে যে বড় ধরণের গ্রেনেড হামলা। আমারও হাতে পায়ে ইট উড়ে এসে পরছে। কয়েক জায়গায় কাইটা গেছে।

শোরুম ভবনের পাশেই অবস্থিত আরেকটি ভবনের বাসিন্দা জানায়, আমি পাশের বিল্ডিয়েই থাকি। বিস্ফোরণে আমার রুমের জানালার কাঁচ ভেঙ্গে আমার গায়ের উপরে পরে। আমি দৌড়ে এখানে আসি। অনেকেই আহত হইসে, সবাইকে হাসপাতালে পাঠানো হইসে।

স্থানীয় আরেক বাসিন্দা জানায়, হটাৎ বিস্ফোরণের আওয়াজ শুনে আইসা দেখি, অনেকের গায়ের চামরা পুড়ে গেছে। মাথা রক্ত দিয়ে ভরে আছে অনেকের। আমি কয়েকজনকে অটোতে তুলে দিসি। আশে পাশের যত বিল্ডিং ছিলো, সব গুলার জানালা কাঁচ ভেঙ্গে গেছে।

শোরুম ভবনের একটু দুরের ভবনের এক বাসিন্দা জানায়, ঘুমের মধ্যেই পৌনে ৯টার দিকে বিকট শব্দ শুনতে পাই। দৌড়ে আইসা দেখি মানুষ দৌড়া দৌড়ি করতাছে। অনেকে আহত হইছে। অনেকের গায়ে কিছু ছিলো না, গায়ের চামরা পুরোটা পুড়ে গেছে।

জানা গেছে, বিস্ফোরণে ওই ভবনসহ পাশের আরও ২টি ভবনের দেয়াল ধ্বসে অন্তত ১৭ জন আহত হয়েছেন৷ আহত অনেককে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের উপসহকারী পরিচালক ফখর উদ্দিন আহম্মাদ বলেন, ‘ঢাকা-মুন্সিগঞ্জ আঞ্চলিক সড়কের পাশে একটি নির্মাণাধীন পাঁচতলা ভবনের নিচতলায় ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা অ্যাসেম্বল এবং বিক্রি করা হয়৷ প্রতিষ্ঠানটির ভেতরে অসংখ্য ব্যাটারি আছে৷ এসব ব্যাটারি থেকেই বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে৷’

এদিকে, ঘটনার প্রায় ১০ ঘন্টা পরও কেউ কোন অভিযোগ দায়ের করায়নি বলে জানায় ফতুল্লা মডেল থানার ওসি নুরে আজম খান।

RSS
Follow by Email