সোমবার, জুন ১৭, ২০২৪
Led02রাজনীতিসিদ্ধিরগঞ্জ

বৃষ্টি হলেই এলাকা ডুবে যায়, অথচ তিনি ১৬ বছর যাবত এমপি: মামুন মাহমুদ

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মামুন মাহমুদ বলেছেন, আজ আমরা দেখছি, উন্নয়নের নামে তারা নানান গল্প বলে। উন্নয়নের কথা বলে তারা দেশটাকে লোপাট করে ফেলছে। উন্নয়নের নামে তারা বিদেশে টাকা পাচার করছে। অন্যদিকে আমরা দেখি, এই ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ অঞ্চলে এক ঘন্টা বৃষ্টি হলেই পানিতে ডুবে যায় বাড়ি-ঘর। কোথায় হলো উন্নয়ন। অথচ তিনি ১৬ বছর যাবত এমপি। ১৬ বছর যদি একজন এক এলাকার এমপি থাকে, তাহলে সেই এলাকা তো সোনা দিয়ে বাধাই করে দেওয়ার কথা। সেই স্থানে আমরা দেখছি, তাদের দামি দামি বাড়ি-গাড়ি হচ্ছে, কিন্তু সাধারণ মানুষের ভাগ্যের কোন উন্নয়ন হচ্ছে না।

শহীদ রাষ্ট্রপতি ও বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৪৩তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বৃহস্পতিবার (৩০ মে) সিদ্ধিরগঞ্জের বিভিন্ন এলাকায় দোয়া ও মিলাদ মাহফিলে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় প্রধান অতিথি হিসেবে গরিব-দুস্থদের মাঝে নেওয়াজ বিতরণ করেন অধ্যাপক মামুন মাহমুদ।

এসময় মামুন মাহমুদ বলেন, এই সরকারকে ক্ষমতায় রেখে বাংলার মানুষ উন্নয়ন আশা করতে পারে না, সু-শাসন আসা করতে পারে না। আপনাদের কাঙ্খিত উন্নয়ন, সু-শাসন একমাত্র দেশ নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াই দিতে পারবে। মানুষের ঘরে ঘরে যদি খাবার দিতে হয়, তাহলে একমাত্র তারেক রহমানই দিতে পারবে। বিএনপি দীর্ঘদিন ক্ষমতায় ছিলো। কিন্তু আমরা দেখছি, বাংলাদেশে জিয়াউর রহমানের একটি বাড়ি নাই; একটি গাড়ি নাই। তারেক রহমানেরও একই অবস্থা। খালেদা জিয়ারও নিজের কোন বাড়ি নাই, তিনি অন্যের দেওয়া একটি বাড়িতে থাকেন। কিন্তু তার পরেও বিএনপির নামে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে বিএনপিকে কুলশিত করতে চায়। যদি জিয়া পরিবার দুর্নীতি করতো তাহলে তাদেরও বিদেশে বাড়ি-গাড়ি থাকতো।

তিনি আরও বলেন, দেশটাকে লুটে পুটে খাওয়ার জন্যই তারা দেশটাকে শাসন করছে। জোর পূর্বক তারা ক্ষমতায় রয়েছে। মানুষ আজ ৫০০টাকা বাজারেও নিয়ে গিয়েও ঠিক মতো পন্য কিরতে পারে না। আর আপনারা লুটপাট করবেন, বিদেশে টাকা পাচার করবেন আর দামি মডেলের গাড়ি কিনবেন। ধানমন্ডি বাড়ি রয়েছে, আবার গুলশানে কিনেন। গুলশানে বাড়ি রয়েছে আবার বাড়ি ধারায় কিনেন। এভাবে দেশ একেবারে দেউলিয়া হয়ে যাচ্ছে। তাই জনগনের বুঝতে হবে আমরা কেন আন্দোলন সংগ্রাম করছি। আমরা বাংলাদেশে জনগনের একটি সরকার দেখতে চাই।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সাবেক প্রকাশনা সম্পাদক ও সিদ্ধিরগঞ্জ থানা বিএনপির সাবেক সিনিয়র যুগ্ন-আহবায়ক রিয়াজুল ইসলাম রিয়াজ, যুগ্ন-আহবায়ক অকিল উদ্দিন ভূইয়া, গাজী মনির হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, ৩নং ওয়ার্ড বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সামাদ খান, ৬নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মনির হোসেন, ৭নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন, ৮নং ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ন সম্পাদক কামাল ভূইয়া, ৪নং ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক শ্যামল, মহানগর যুবদল নেতা আক্তারুজ্জামান আক্তার, ৩নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক লিটন আহমেদ, ৩নং ওয়ার্ড বিএনপির যুগ্ন-সম্পাদক ইমরান হোসেন,যুবনেতা মাইনুল ইসলাম, সাবেক ছাত্র নেতা জুয়েল রানা, ২নং ওয়ার্ড বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মোজাম্মেল হোসেন, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা তাতীদলের সভাপতি তাজুল হোসেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রদলের যুগ্ন-সম্পাদক মেহেদী হাসান ফারহান প্রমূখ।

RSS
Follow by Email