বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
Led04রাজনীতি

না.গঞ্জে বিএনপির সমাবেশ, যা করতে চায় আ.লীগ

# আমাদের নেতাকর্মীরা সতর্ক অবস্থানে থাকবে: খোকন সাহা
# কথা বলার অধিকার আছে, তবে গণতান্ত্রিক উপায়ে: শাহ নিজাম
# না.গঞ্জের গণতান্ত্রিক অবস্থা বজায় রাখবো:সাজনু
# ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিহত করবো: মেহেদী

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জে বিশাল সমাবেশ করে দেশ ব্যাপী আলোচনায় ছিলেন ক্ষমতাশীন দল আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান। এবার তাঁর আসনেই স্মরণকালের শ্রেষ্ঠ সমাবেশ করতে চাইছে মাঠের বিরোধী দল বিএনপি। গত কয়েক দিন যাবত সমাবেশটি সফল করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। সবকিছু ঠিক থাকলে আজ ফতুল্লার সাইনবোর্ড এলাকায় সমাবেশ করবে দলটি। বিএনপির এই সমাবেশ নিয়ে নারায়ণগঞ্জের আওয়ামী লীগ নেতাদের তেমন কোন মাথা ব্যাথা নেই। তারা বলছেন, ‘গণতান্ত্রিক ভাবে আন্দোলন সংগ্রাম করার অধিকার সব দলেরই রয়েছে, আন্দোলন সংগ্রামে অরাজকতা করলে প্রতিহত করা হবে।’

গত ১৬ সেপ্টেম্বর নারায়ণগঞ্জের ২ নং রেল গেট এলাকায় নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমানের নেতৃত্বে বিশাল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেই সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। ব্যাপক আলোচিত হয়েছিলো সমাবেশ। শুধু নারায়ণগঞ্জ নয়, জেলার বাইরেও ছিলো এর চর্চা। জনসভায় বিরোধী দলসহ বিএনপি-জামায়াত নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা করেছিলেন আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতারা।

সেখান থেকে সংসদ সদস্য শামীম ওসমান ঘোষণা দিয়েছেন, এই জনসমাবেশের পর থেকে নারায়ণগঞ্জ বিএনপিকে কর্মসূচি পালন করার নামে আর কোন অরাজকতা করার সুযোগ দেওয়া হবে না। এখন থেকে আমরা রাজপথে থাকবো। জনগণ যদি চায় তাহলে আমরা তাদের নিয়েই বিএনপিকে মোকাবেলা করবো।

মাত্র ১১ দিনের ব্যাবধানে ২৭ সেপ্টেম্বর বিএনপি শামীম ওসমানের এলাকা ফতুল্লায় সমাবেশের ডাক দিয়েছে। এরই মধ্যে শামীম ওসমান স্বপরিবারে ওমরাহ হজ্জ্ব পালনের জন্য সৌদি আরবে পাড়ি জমিয়েছেন। তবে সরকারের বিরুদ্ধে নারায়ণগঞ্জ বিএনপির আন্দোলনকে রাজনৈতিকভাবেই মোকাবিলা করতে চায় ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগ। নারায়ণগঞ্জে রাজনীতির মাঠ যাতে বিএনপির দখলে না যায়, সে জন্য এমপি শামীম ওসমানের ডাকে রাজপথে থাকবে আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।

নারায়ণগঞ্জ জেলা মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, শামীম ওসমান আমাদের নেতা ঠিক আছে কিন্তু আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি হিসেবে বলবো, কেউ যদি রাজনীতি ও গণতন্ত্রের নামে অরাজকতা সৃষ্টি করে, সেটা আমরা হতে দিবো না। আমি শামীম ওসমানের কথার সাথে একমত। যদি তারা (বিএনপি) নিপিড়ন ও নাশকতা করতে চায়, তাহলে আমরা প্রতিহত করবো। নারায়ণগঞ্জে আমাদের নেতাকর্মীরা সতর্ক অবস্থানে থাকবে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ‘এটা একটা গণতান্ত্রিক দেশ। আন্দোলন সংগ্রাম করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একটি গণতান্ত্রিক রাষ্ট্রে পরিনত করেছে। এখানে সবার কথা বলার অধিকার রয়েছে। তবে সেটা গণতান্ত্রিক উপায়ে। কোন বিশৃঙ্খলা, মানুষের ক্ষতি হবে, জনগণ দূর্ভোগ পোহাবে, দেশের সম্পদ নষ্ট হবে এমন কোন কর্মকান্ড বিএনপি যদি করে, তাহলে অবশ্যই জনগণকে সাথে নিয়ে এর প্রতিহত করা হবে। জনগণের সাথে সম্পৃক্ত হয়ে অন্যায়ের প্রতিবাদ করবো।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন সাজনু লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, সেদিন এমপি শামীম ওসমান যে কথা বলেছেন, তার আগেই তিনি সব সময় আমাদের নেতাকর্মীদের বলেছেন সব সময় প্রস্তুত থাকতে। যে কোন সময় মাঠে নামতে হতে পারে। ২০১৪ সালে ৫ জানুয়ারি নির্বাচনের আগে বিএনপি-জামায়াত দেশের মধ্যে যে আগুন সন্ত্রাস করেছিলো, তখন আমরা এমপি শামীম ওসমানের নেতৃত্বে প্রতিহত করেছিলাম। ১৬ সেপ্টেম্বর এমপি শামীম ওসমান ভাই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সামনে যে ঘোষণা দিয়েছেন আমরা সেটা প্রতিহত করবো। বিএনপি যদি আবারও আগুন সন্ত্রাস করতে চায় তাহলে আমরা নেতাকর্মীরা সেটা প্রতিহত করে নারায়ণগঞ্জের গণতান্ত্রিক অবস্থা বজায় রাখবো।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, বিএনপি তাদের সভা সমাবেশ করবে তাতে আমাদের কোন সমস্যা নাই। কারণ প্রতিটা রাজনৈতিক দলের সভা সমাবেশ করার গণতান্ত্রিক অধিকার আছে। তবে সভা সমাবেশের নামে কেউ যদি জনগণের ক্ষতি সাধন করে ও অরাজকতা সৃষ্টি করতে চায় তাহলে অবশ্যই আমরা ছাত্রলীগ, আমাদের নেতা শামীম ওসমানের ডাকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে প্রতিহত করবো।

RSS
Follow by Email