বুধবার, এপ্রিল ১৭, ২০২৪
Led03রাজনীতি

বিএনপি কালো পতাকা মিছিল: বৃষ্টি উপেক্ষা করে নেতাকর্মীদের ঢল

স্টাফ করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: তুমুল বৃষ্টিকে উপেক্ষা করেই কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে কালো পতাকা গণ-মিছিল করেছেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপি। শনিবার (২৬ আগস্ট) বিকালে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাব ভবনের সামনে শুরু হয় ওই কর্মসূচি। বৃষ্টিতে ভিজেই প্রেস ক্লাবের সামনে থেকে মিছিল শুরু করে পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টারের চত্বর ঘুরে বঙ্গবন্ধু সড়ক হয়ে ২নং রেলগেইট এলাকায় শেষ করে কালো পতাকা মিছিল।

এদিকে, বিকাল থেকেই বিভিন্ন উপজেলা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ডের নেতাকর্মীদের খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে সমাগম হওয়া শুরু হয়। এ সময় মহানগর বিএনপির আওতাধীন বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক, শ্রমিকদল, মহিলাদল, কৃষকদল, তাঁতীদল, ওলামাদলসহ অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মী, নেতৃত্বের জানান দিতে ব্যানার অব্দি এসে জড়ো হতে শুরু করেন। সরকারের পদত্যাগসহ নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের ১দফা দাবিতে শুরু হওয়া, কালো পতাকা গণ-মিছিল পূর্ব সমাবেশে বক্তব্য রাখতে শুরু করে নেতাকর্মীরা। প্রধান অতিথি উপস্থিত হয়ে বক্তব্য শুরুর খানিকের মধ্যেই তুমুল বৃষ্টি হয়। তবুও বৃষ্টিতে ভিজে নেতাকর্মীরা হাতে কালো পতাকা ও ব্যানার- ফেস্টুনে নিয়ে সরকারের পদত্যাগ, খালেদা জিয়ার মুক্তি, সংসদ বিলুপ্তিকরণ, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর ও নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করে নির্বাচন করার বিভিন্ন স্লোগান দেন।

মহানগর বিএনপি আয়োজিত কালো পতাকা গণমিছিলে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিএনপি চেয়ার্পারসনের উপদেষ্টা ও সাবেক বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ জয়নুল আবদিন ফারুক।

তিনি বলেন, আমরা ১৪ বছর গুম, খুন, হামলা-মামলা সহ্য করেই এই পর্যন্ত এসেছি। দেশ আজ আওয়ামী লীগের হাতে বন্দি। তারা আজ বাংলাদেশের মানুষের সকল অধিকারকে হত্যা করেছে। যতেই অত্যাচার করুন না কেন, বাংলাদেশের মাটিতে এই আওয়ামী সন্ত্রাসদের এক দিনও ক্ষমতায় রাখতে চাই না। নারায়ণগঞ্জে বিএনপির নেতাকর্মীদের বিনা মামলায় গ্রেফতার করা শুরু করেছেন। তারেক রহমানের ১দফা দবির প্রতি বাংলাদেশের ৮৫ ভাগ মানুষের সমর্থন রয়েছে।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এড. সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, আমরা ১ দফা দাবি বাস্তবায়ণ করবো ইনশাআল্লাহ। এই দেশের মানুষ আওয়ামী লীগ সরকারকে টেনে হিচড়ে নামিয়ে জনগণের সরকার কায়েম করবে। এই সমাবেশ থেকে আমরা ১দফা দাবিতে সরকারের পদত্যাগের দাবি জানাচ্ছি।

এ সময় নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির আহ্বায়ক এড. সাখাওয়াত হোসেন খানের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব এড. আবু আল ইউসুফ খান টিপু’র সঞ্চালনায় আরও উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক এড. জাকির হোসেন, যুগ্ম আহবায়ক মনির হোসেন খান, আনোয়ার হোসেন আনু, ফতেহ মো. রেজা রিপন, মহানগর যুবদলের আহ্বায়ক মমতাজ উদ্দিন মন্তু, সদস্য সচিব মনিরুল ইসলাম সজল, মহানগর শ্রমিকদলের আহ্বায়ক এস এম আসলাম, সদস্য সচিব ফারুক হোসেন, বন্দর উপজেলা বিএনপি’র সভাপতি মাজহারুল ইসলাম হিরণ, সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশিদ লিটন, বন্দর থানা বিএনপি’র সভাপতি শাহেনশাহ আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হক রানা, মহানগর যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক সাগর প্রধান, যুগ্ম আহ্বায়ক মোয়াজ্জেম হোসেন মন্টি, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি শাহাদুল্লাহ মুকুল, সাধারণ সম্পাদক নজরুল ইসলাম, গোগনগর বিএনপির সভাপতি আক্তার হোসেন, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর হোসেন মিয়াজী, আলীরটেক ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আ. রহমান, সিনিয়র সহ-সভাপতি জুলহাস সরদার, সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, মুছাপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি তাঁরা মিয়া, সাধারণ সম্পাদক শাহিন আহমেদ, ধামগড় ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি জাহিদ খন্দকার, সাধারণ সম্পাদক মহসিন মিয়া, মদনপুর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি মামুন ভূইয়া, সাধারণ সম্পাদক শাহেন শাহ্ মিঠু, বন্দর ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি রাজু আহম্মেদ, সাধারণ সম্পাদক মাসুদ রানা, মহানগর ছাত্রদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মমিনুর রহমান বাবু, মহানগর জাসাসের সভাপতি জাহাঙ্গীর হোসেন স্বাধীন, মহানগর মহিলা দলের সভাপতি দিলারা মাসুদ ময়না, সাধারণ সম্পাদক আয়েশা আক্তার দিনা, মহানগর ছাত্রদলের সভাপতি রাকিবুর রহমান সাগর, সাধারণ সম্পাদক রাহিদ ইসতিয়াক শিকদার,মহানগর ওলামা দলের সভাপতি হাফেজ মামুনসহ অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

RSS
Follow by Email