শুক্রবার, জুলাই ১২, ২০২৪
Led04জেলাজুড়েবন্দর

বন্দরে মনু হত্যায় আসামিদের ফাঁসির দাবিতে মানববন্ধন

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরের গুলি করে কুপিয়ে মনিরুজ্জামান মনু হত্যার ঘটনায় মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। মঙ্গলবার (২৫ জুন) মদনপুরের মুরাদপুর এলাকায় সকাল ৭টায় নিহতের বোন শাহিনার নেতৃত্বে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানবন্ধন শেষে তারা বিক্ষোভ মিছিল বের করে। মিছিলটি মুরাদপুর থেকে শুরু করে মদনপুর ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে। এক পর্যায়ে তারা রাস্তা অবরোধ করে রাখে। এতে ঢাকা-চট্রগ্রম মহাসড়কে প্রায় আধা ঘন্টা যান চলাচল বন্ধ থাকে।

মানববন্ধনপূর্বক সভায় বক্তারা বলেন, মনিরুজ্জামান মনু ২০ বছর ধরে বাড়ি ছাড়া। তাকে যারা হত্যা করেছে তাদের অমানুষ। রহস্যজনক কারণে বন্দর থানা পুলিশ খুনীদেরকে গ্রেফতার করছেনা। পুলিশের গাফিলতির কারণে খুনীরা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে এবং নিহতের পরিবারের সদস্যদেরকে মামলা তুলে নেয়াসহ এ বিষয়ে কোন প্রতিবাদ না করার জন্য প্রতিনিয়তই হুমকি-ধামকি দিয়ে দিয়ে যাচ্ছে। আমরা আমাদের জানের নিরাপত্তা চাই। এমপি, মেয়রসহ, ও মাননীয় প্রধাণমন্ত্রী’র হস্তক্ষেপ চাই।

সূত্র মতে,গত ৭ জুন শুক্রবার সকাল ১১টায় পূর্ব বিরোধের জের ধরে মদনপুর মুরাদপুর এলাকার সন্ত্রাসী মনির,টিটু,মিঠু,ফারুক,নুরুল,জিকু,জনি,মিন্টুসহ একটি সন্ত্রাসী দল দেশি-বিদেশী অস্ত্র-সস্ত্রে সজ্জিত হয়ে একই এলাকার মৃত কামাল উদ্দিনের পুত্র মনিরুজ্জামান মনুকে বাড়ি থেকে টেনে হিঁচড়ে বের প্রকাশ্যে দিবালোকে প্রথমে শরীরের বিভিন্ন স্থানে কয়েক রাউন্ড গুলিবিদ্ধ করে পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে এবং হাতুড়ী দিয়ে এলোপাথাড়ি পিটিয়ে নৃশংসভাবে হত্যা করে।

উল্লেখ্য, গত ৭ জুন এনসিসির ২৭নং ওয়ার্ডের মুরাদপুরে নিজ বাড়ির সামনে হামলার শিকার হয়ে নিহত হন মনিরুজ্জামান মনু। পরদিন ৮ জুন থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেন নিহতের স্ত্রী সাবিনা বেগম। বুধবার (১২ জুন) নরসিংদী জেলার ঘোড়াশাল এলাকায় অভিযান চালিয়ে হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত আসামি নূরে আলম ওরফে নুরুলকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। অন্যান্যদের গ্রেপ্তার জন্য চেষ্টা অব্যাহত আছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

RSS
Follow by Email