সোমবার, মে ২০, ২০২৪
জেলাজুড়েবন্দর

বন্দরে গলায় ফাঁস দিয়ে গৃহবধূর আত্মহত্যা, থানায় মামলা দায়ের

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বন্দরে সাথী আক্তার (২৮) নামে এক গৃহবধূ আত্মাহত্যার ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের হয়েছে। অপমৃত্যু মামলা নং- ১৮ তাং- ১৫-৫-২৪ইং। গৃহবধূর স্বামী টিটু পাটুয়ারী বুধবার (১৫ মে) বাদী হয়ে বন্দর থানায় এ মামলা দায়ের করে।

এর আগে, মঙ্গলবার (১৪ মে) বন্দর রেলী আবাসিক এলাকাস্থ জনৈক হাসান মিয়ার ৫ তলা ভবনের ২য় তলার ফ্লাটে এ আত্মহত্যার ঘটনাটি ঘটে।

অপমৃত্যু মামলার তথ্য সূত্রে জানা গেছে, লক্ষীপুর জেলার রামগঞ্জ থানার সোনাপুর পাটোয়ারী বাড়ি মৃত জয়নার পাটোয়ারী ছেলে টিটু পাটুয়ারী। তিনি ও তার পরিবার দীর্ঘ দিন ধরে বন্দর রেলী আবাসিক এলাকার জনৈক হাসান মিয়ার ৫ তলা ভবনের ২য় তলার একটি ফ্লাটে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছেন। টিটু পাটুয়ারী পেশায় একজন কাঁচামাল ব্যবসায়ী। তার স্ত্রী সাথী আক্তার দীর্ঘ দিন ধরে মানসিক রোগে আক্রান্ত ছিলেন। এর ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার (১৪ মে) রাত ১০ টায় প্রতিদিনের ন্যায় রাতে খাবার খেয়ে ঘুমিয়ে পরে। ওই রাত সাড়ে ১০টায় স্বামী টিটু পাটুয়ারী হঠাৎ শব্দ পেয়ে ঘুম থেকে জেগে উঠে দেখে তার স্ত্রী তার পাশে নাই। রুমের দরজা বাহির থেকে বন্ধ আছে। ওই সময় স্বামী ডাক চিৎকার পাশের ফ্লাটের লোকজন ফ্লাটের দরজা ভেঙ্গে রুম থেকে বের হন। পরে লোকজনসহ স্বামী টিটু পাটুয়ারী ফ্লাটের অন্যরুমে প্রবেশ করে দেখে সাথি আক্তার সিলিং ফ্যানের সাথে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগিয়ে ঝুলে আছেন। পরবর্তীতে গৃহবধূকে ঝুলান্ত অবস্থা থেকে নামিয়ে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক রাত সাড়ে ১১টায় মানসিক রোগে আক্রান্ত গৃহবধূকে মৃত ঘোষণা করে।

এব্যাপারে বন্দর থানার পুলিশ পরিদর্শক (অফিসার ইনচার্জ) গোলাম মোস্তফা লাইভ নারায়ণগঞ্জকে জানান, এ নিয়ে থানায় অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, পারিবারিক কলহ থেকে এ ঘটনা ঘটে। তবে ময়না তদন্তের রির্পোট আসলে গৃহবধূর মৃত্যুর কারণ সঠিকভাবে বলা যাবে।

RSS
Follow by Email