মঙ্গলবার, এপ্রিল ২৩, ২০২৪
Led03জেলাজুড়েবন্দর

বন্দরে আবু বক্কর হত্যা মামলায় যুবক আটক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ:বন্দরে মো. আবু বক্কর (২১) হত্যার ঘটনায় এক অভিযুক্তকে আটক করেছে র‌্যাব-১১। তাদের দাবি আটককৃত যুবক ওই হত্যা মামলার পলাতক আসামী। শনিবার (২৬ আগস্ট) রাজধানীর তেজগাঁও থানার কাওরান বাজার মৎস্য আড়ৎ এলাকা থেকে আটক করা হয়।

আটককৃত যুবকের নাম সুমন ওরফে শোভন (২১)। সে বন্দর উপজেলার কলাবাগ এলাকার হাকিম মিয়ার ছেলে।

র‌্যব-১১ মিডিয়া অফিসার (সিনিয়র এএসপি) মো. রিজওয়ান সাঈদ জিকু এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, গত ১৭ জুলাই দুপুরের খাওয়া দাওয়া শেষে ভিকটিম মো. আবু বক্কর নিজ বাসায় ঘুমিয়ে পড়েন। ঐ দিন বিকাল ৫টায় কাউকে কিছু না বলে বাসা থেকে বের হয়ে যায়। পরবর্তীতে রাত ১টায় ঘরে ফিরে না আসলে ভিকটিমের পিতা তার আত্মীয় স্বজনের বাসায় খোঁজাখুজি করে কোথাও ভিকটিমকে না পেয়ে খোঁজাখুজি করতে থাকে। তিনি গত ১৯ জুলাই সকাল ৬ টায় কাজের উদ্দেশ্যে তার রিক্সা নিয়ে বাসা হতে বের হয়ে বন্দর থানার টিনের মসজিদের সামনে চায়ের দোকানে থাকাকালীন জানতে পারে যে, বন্দর উত্তর কলাবাগ আব্দুল কাদিরের পুকুরে একটি অজ্ঞাতনামা লাশ পাওয়া গেছে। তিনি সাথে সাথে ঘটনাস্থলে গিয়ে তার ছেলে মো. আবু বক্করের লাশ সনাক্ত করেন।

তিনি আরও জানান, ১৭ জুলাই থেকে ১৯ জুলায়ের মধ্যে যে কোন সময় অভিযুক্ত সুমন ওরয়ে শোভন (২১)’সহ তার সহযোগী পলাতক অন্যান্য আসামীরা পরস্পর যোগসাজসে মো. আবু বক্করকে মাথায় ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে গুরুতর আঘাত করে, হত্যা করে লাশগুম করার উদ্দেশ্যে বন্দর উত্তর কলাবাগ আব্দুল কাদিরের পুকুরে ফেলে দেয়। ওই ঘটনায় নিহত ভিকটিমের পিতা মো. হারুন অর রশিদ বাদী হয়ে বন্দর থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন। ঘটনার পর হতে আসামী পলাতক ছিল।

র‌্যাবের এই কর্মকর্তা জানান, নৃশংস এই ক্লুলেস হত্যাকান্ডে জড়িত তদন্তে সন্দিগ্ধ দীর্ঘদিন পলাতক আসামীদেরকে গ্রেপ্তারের লক্ষ্যে র‌্যাব-১১ তাদের অবস্থান সনাক্ত পূর্বক গ্রেপ্তারের চেষ্টা করে। পরবর্তীতে সুনির্দিষ্ট তথ্যের ভিত্তিতে ক্লুলেস হত্যা মামলার তদন্তে সন্দিগ্ধ দীর্ঘদিন পলাতক আসামী সুমন ওরফে শোভনকে সনাক্ত ও তার অবস্থান নিশ্চিত হয়ে ২৬ আগস্ট আটক করতে সক্ষম হয়। পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রমের জন্য বন্দর থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

RSS
Follow by Email