সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪
Led05জেলাজুড়েবন্দররাজনীতি

বন্দরে অগ্নিসংযোগ-ককটেল বিস্ফোরণে মামলায় বিএনপি’র ৯ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার

বন্দর করেসপন্ডেন্ট, লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বিএনপি-জামাতের অবরোধকে কেন্দ্র করে ঢাকা-চট্রগ্রাম মহাসড়কের বন্দর স্ট্রীল মিলের সামনে ২টি পিকআপ ভ্যানে অগ্নিসংযোগ-গাড়ি ভাংচুর, হরতালে মদনপুর টু মদনগঞ্জ সড়কের ফুলহর এলাকায়, ককটেল বিষ্ফোরণ ও যানবাহন ভাংচুরের ঘটনায় বিএনপির ৯ জনকে গ্রেপ্তার করেছে বন্দর থানা পুলিশ। বৃহস্পতিবার (২ নভেম্বর) রাতে বন্দরের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে এদের গ্রেপ্তার করা হয়।

শুক্রবার (৩ নভেম্বর) দুপুরে গ্রেপ্তারকৃতদের আদালতে প্রেরন করা হয়। এ ব্যাপারে বন্দর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফয়েজ আহাম্মেদ ও কামতাল তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আল ইসলাম বাদী হয়ে বন্দর থানায় রুজুকৃত ককটেল বিষ্ফোরণ ও যানবাহন ভাংচুরের ঘটনায় পৃথক ২টি মামলা রুজু করেন।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছে বন্দরের হরিপুর এলাকার মৃত আসাদ মিয়ার ছেলে মনির হোসেন ওরফে বালু মনির(৪৮)মদনপুর সাহেব বাড়ি এলাকার নজরুল ইসলামের ছেলে রোহান(২১),বন্দরের একরামপুর এলাকার মৃত সামসুল কায়সারের ছেলে কাজী নজরুল ইসলাম( ৬১),একরামপুর এলাকার বীর মুক্তিযোদ্ধা সিরাজুল ইসলামের ছেলে মাহবুবুর রহমান(৪৮) শান্তি নগর এলাকার মৃত সাইজুদ্দিনের ছেলে সেলিম(৫৭), সোনাকান্দা এলাকার মৃত নূরুল হুদার ছেলে হাসান মৃধা( ৪৫), পশ্চিম হাজীপুর এলাকার মৃত আবদুল কাদির মিয়ার ছেলে আবদুল খালেক( ৫২),এনায়েতনগর এলাকার মৃত লালচাঁন মিয়ার ছেলে মামুন(৩৫), সোনাকান্দা এলাকার মৃত বাচ্চু মিয়ার ছেলে মোঃ রফিক(৪০)।

পুলিশ জানিয়েছে, গত ২৮ অক্টোবর বিএনপি ডাকা হরতালে বন্দরের ফুলহর এলাকায় ককটেল বিস্ফোরণ ও গাড়ি ভাংচুর করে রাস্তায় প্রতিবন্ধকতা তৈরী করে ও ১লা নভেম্বর অবরোধ চলাকালে বন্দর ঢাকা টু চট্রগ্রাম মহাসড়কের বন্দর স্ট্রিল মিল এলাকায় দুটি পিকআপ ভ্যানের অগ্নিসংযোগ ও যানবাহন ভাংচুরের ঘটনা ঘটে। গ্রেফতারকৃতরা বিএনপির রাজনীতির সাথে জড়িত।

RSS
Follow by Email