বুধবার, মে ২২, ২০২৪
Led01জেলাজুড়েবন্দররাজনীতি

বন্দরের ৫৪ টি সেন্টার হবে সেলিম ওসমানের দুর্গ: খোকা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য, ঢাকা বিভাগীয় অতিরিক্ত মহাসচিব ও জাতীয় স্বেচ্ছাসেবক পার্টির সভাপতি লিয়াকত হোসেন খোকা বলেছেন, এখানে ৫৪ টি সেন্টার আছে। এই ৫৪ টি সেন্টারে এক একটিতে সেলিম ওসমানের নেতৃত্বে দুর্গ গড়ে তুলতে হবে। প্রতিটা সেন্টার হবে সেলিম ওসমানের দুর্গ।

শুক্রবার (৩ মে) বন্দরের মিনাবাড়ি এলাকায় জাতীয় পার্টির কর্মীসভা অনুষ্ঠানে এ কথা বলেছেন লিয়াকত হোসেন খোকা।

এসময় সাবেক এই সংসদ সদস্য আরও বলেন, এলাকার সংসদ সদস্য আমাদের শ্রদ্ধেয় সেলিম ওসমান, আজ পর্যন্ত তিনি এখানে যে যে কাজ করছেন সেগুলোতে শুধু উন্নয়নই হয়েছে। যিনি সর্বক্ষন বন্দরের উন্নয়নের কথা ভাবেন তিনি যখন এই নির্বাচনের উপর কোন সিদ্ধান্ত দেবেন, সেটি তো উনি বুঝেই দিবেন। তিনি জানেন কাকে নিয়ে কাজ করলে বন্দরের উন্নয়ন হবে। দলের সিনিয়র নেতাদের সাথে কথা বলে এবং জনপ্রতিনিধিদের সাথে আলাপ আলোচনা করে সেলিম ওসমান তার পছন্দের প্রার্থীদের মনোনিত করেছেন। সেলিম ওসমান আপনার আমার আপনজন, এই বন্দরের প্রাণ এবং বন্দরের জনমানুষের আপনজন। তিনি বন্ধরের কথা চিন্তা করেই এই তিনজনকেই মনোনয়ন করেছেন।

লিয়াকত হোসেন খোকা আরও বলেন, নেতা কর্মীদের বলবো আজ থেকেই আলাপ আলোচনা করেন, বন্দরের প্রতিটা ভোটারদের ঘরে ঘরে যেতে হবে। তাদের সবাইকে বুঝাতে হবে যে সেলিম ওসমানের প্রিয় পার্সন এই তিনজনই। এই তিনজন নির্বাচিত হলে এলাকার মানুষ শান্তিতে থাকবে এবং এলাকার উন্নয়ন হবে। আমি আশা করি মানুষ বেইমান না। কিছু কিছু আরোদ দাররা বেইমান হতে পারে কিন্তু মানুষ কখনো বেইমান হতে পারে না। বন্দরের মানুষ যেমন নাসিম ওসমানকে ভালোবাসে তেমনি সেলিম ওসমানকেও ভালোবাসে। যখন তাদের কানে যাবে যে এই নির্বাচনে সেলিম ওসমানের পছন্দের প্রার্থীরা আছেন, তখন আমার মনে হয় না তারা অন্য কোথাও ভোট দেবে। এই বন্দরে আমি কাজ করেছি এই বন্দরের সাধারণ মানুষ অত্যন্ত ভালো। আজ থেকে প্রতিদিন নেতাকর্মীরা ইউনিয়ন এবং ওয়ার্ড পর্যায়ে প্রতিটি কেন্দ্রে এবং প্রতিটি ভোটারদের কাছে বাসায় বাসায় গিয়ে কিভাবে কাজ শুরু করে দেন। যদি আপনারা একসাথে কাজ করেন তাহলে আমি মনে করি আমাদের বিরুদ্ধে যারা ক্যান্ডিডেট দাঁড়িয়ে আছে তাদের জামানত ও থাকবে না।

কর্মীসভায় বন্দর উপজেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি বাচ্চু মিয়ার সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সানাউল্লাহ সানু, মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি মোদাচ্ছেরুল হক দুলাল, সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন, বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহাম্মেদ, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার হোসেন, ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কামাল হোসেন, জেলা জাতীয় পার্টির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিপন ভাওয়ালসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড ইউনিয়নের নেতাকর্মীরা।

RSS
Follow by Email