রবিবার, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
রাজনীতি

বঙ্গবন্ধু মানেই স্বাধীনতা, তার হত্যাকারীরা স্বাধীনতা বিরোধী: চন্দন শীল

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু চন্দন শীল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ, বঙ্গবন্ধু মানেই স্বাধীনতা। তার স্বপ্নই ছিলো এই ভুখন্ডকে তিনি স্বাধীন করবেন এবং বাঙ্গালি জাতিকে প্রতিষ্ঠিত করবেন। তিনি বাংলার মানুষদের বুঝিয়েছেন যে, আমাদের ওই পাকিস্তানিদের অধিন থেকে বেড়িয়ে আসতে হবে। ভাষা আন্দোলনের সময় বঙ্গবন্ধুকে গ্রেফতার করে জেলে রাখা হয়। তিনি জেলখানা থেকেও আন্দোলনের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন। তার জিবন-যৌবনের বেশির ভাগ সময় তিনি জেলখানাতেই কাটিয়েছেন।

১৫ই আগস্ট জাতীয় শোক দিবস ও ২১শে আগস্ট গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে বুধবার (৩০ আগস্ট) বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগ আয়োজিত দোয়া মাহফিল ও নেওয়াজ বিতরণ কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক আব্দুল কাদিরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চন্দন শীল।

প্রধান অতিথি বলেন, বঙ্গবন্ধুকে ১৯৭১ সালে ২৫শে মার্চ রাতে গ্রেফতার করে পাকিস্তানে নিয়ে যাওয়া হলো। তাকে বলা হলো যুদ্ধ বন্ধ করো নয়তো এখানেই তোমাকে হত্যা করা হবে। তার পাশেই একটি কবর খুরে রাখা হয়েছিলো। বঙ্গবন্ধু তখন বলেছিলেন, আমি একজন মুসলমান আমাকে হত্যা করলেও আমি মাথা নত করবো না; শুধু মৃত্যুর পরে আমার লাশটি আমার মাতৃভুমিতে পাঠিয়ে দিও।

তিনি আরও বলেন, বঙ্গবন্ধু মানেই স্বাধীনতা, আর বঙ্গবন্ধুকে যারা হত্যা করেছে তারা স্বাধীনতা বিরোধী। বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পর জয় বাংলা স্লোগান বন্ধ করে দেয়া হয়েছিলো। বঙ্গবন্ধুর ছবি নিষিদ্ধ করা হয়েছিলো। ‘বাংলাদেশ বেতার’ রাতারাতি ‘রেডিও পাকিস্তান’ করে দেয়া হয়েছে। আমাদের আবারো পরাধীন করাই ছিলো তাদের লক্ষ্য।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক দপ্তর সম্পাদক এম এ রাসেল, জেলা ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হাসান নিপু, বাংলাদেশ ট্যাংকার লরি শ্রমিক ইউনিয়ন কেন্দ্রীয় কমিটির যুগ্ম সম্পাদক মো. আশরাফ উদ্দিন।

RSS
Follow by Email