বৃহস্পতিবার, মে ২৩, ২০২৪
Led05জেলাজুড়েফতুল্লা

ফতুল্লায় শ্বাসরোধে স্ত্রীকে হত্যা: সেই পলাতক ঘটনায় স্বামী আটক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লায় শ্বাসরোধে স্ত্রী তাসনিম (২২)কে হত্যার পর লাশ হাসপাতালে রেখে পালিয়ে যাওয়া কথিত স্বামীরকে গ্রেপ্তার করেছে র‌্যাব-১১। সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) ফতুল্লার কুতুবআইল এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে ফতুল্লা মডেল থানায় নিহতের বাবা সায়েদ মিয়া একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। গ্রেপ্তারকৃত স্বামী এই চাঞ্চল্যকর হত্যা মামলার অন্যতম প্রধান আসামী ছিলেন।

গ্রেপ্তারকৃত স্বামীর নাম শাওন ওরয়ে ফরহাদ ওরফে শাকিল (২৩)। সে পটুয়াখালী বাউফলের কালাইয়া কমলার দিঘীর পশ্চিম পাড় গ্রামের মো. ফরিদ গাজীর ছেলে।

র‌্যাব-১১ মিডিয়া অফিসার (এএসপি) সনদ বড়ুয়া এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, গত ১ ফেব্রুয়ারি আনুমানিক সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় নিহত ভিকটিম তাসনিমকে নিয়ে ভিক্টোরিয়া হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আসেন। জানা যায়, বিগত ৩/৪ পূর্বে তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে ফতুল্লার মাসদাইর এলাকায় অবস্থিত আমানা গার্মেন্টসে কাজ করতেন। ওই গার্মেন্টসের পাশেই একটি বাড়িতে তারা দুজন ভাড়া থাকতেন। শাকিল ওরফে শাওন নিথর অবস্থায় তাসনিমকে শহরের ভিক্টোরিয়া হাসপাতালে নিয়ে যান। তখন হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপর কৌশলে হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যান শাওন। চিকিৎসকের ধারণা, তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে। সংবাদ পেয়ে মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এই চাঞ্চল্যকর হত্যাকাণ্ডের পর থেকে আত্মগোপনে ছিল অভিযুক্ত স্বামী।

র‌্যাব জানায়, র‌্যাব-১১ গোয়েন্দা টীম যথাযথ গুরুত্বের সাথে তার অবস্থান সনাক্ত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করেন। পরবর্তীতে আসামী শাওন ওরফে ফরহাদ ওরফে শাকিলকে ফতুল্লা এলাকা হতে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। পরবর্তী আইনানুগ কার্যক্রমের জন্য ফতুল্লা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

RSS
Follow by Email