বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০২৪
Led03ফতুল্লা

ফতুল্লার ৬ ভবনের অবৈধ অংশ ভেঙে দিল রাজউক

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ফতুল্লার তুষারধারায় ৬টি বহুতল ভবনে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। ভবন গুলোর মালিকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, কর্তৃপক্ষের অনুমোদিত নকশার বাহিরে গিয়ে কাজ চলছিল ভবন গুলোতে।

রোববার (৮ অক্টোবর) দিন ব্যাপী অভিযান চালিয়ে এ সব ভবনের নকশা বহির্ভূত অংশ ভাঙ্গা হয়েছে।

 

রাজউক জোন-৮ এর পরিচালক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ ইয়াহ ইয়া খানের নেতৃত্বে অভিযানে ছিলেন জোন-৮ এর অথরাইজড অফিসার মোঃ ইলিয়াস, সহকারী অথরাইজড অফিসার কায়সার পারভেজ, প্রধান ইমারত পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম, ইমারত পরিদর্শক মো: শফিউল্লাহ।

এসময় ডিপিডিসি ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

ভবন গুলোর মধ্যে কাজী মো. ফারুক হোসেনের ৯ তলা নির্মাণাধীন ভবন, মো. আবু তাহেরের নির্মাণাধীন ১ তরা ভবন, মো. হুমায়নের নির্মাণাধীন ১ তলা ভবন, মো. শাহজাহান মজুমদারের নির্মাণাধীন ৭ তলা ভবন, মো. মহিউদ্দিনের নির্মাণাধীন ১০ তলা ভবন ও মো. শহিদুল ইসলামের নির্মাণাধীন ৭ তলা ভবনের বর্ধিত ক্যান্টিলিভার, সেটব্যাক আংশিক এবং ওয়াল ভেঙ্গে অপসারণ করা হয়েছে।

রাজউক সূত্রে জানা যায়, এলাকাটি ঘনবসতিপূর্ণ। বিভিন্ন সময় নানা দুর্ঘটনা ঘটে। যদি নকশা বহির্ভূত ভবন নির্মাণ বন্ধ না হয়, তাহলে দুর্ঘটনা কমানো যাবে না। তাই, জনসাধরণের মধ্যে সচেতনাত বাড়াতে হবে, এমন নিয়ম মেনে ভবন নির্মান করার অনুরোধ জানানো হচ্ছে। নকশা ব্যতিরেকে ভবন নির্মাণের অভিযোগে আজকের ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান পরিচালিত হচ্ছে। অভিযানে নকশা বহির্ভূত ৫টি বহুতল ও নির্মাণাধীন ভবনের আংশিক অপসারণ করা হয়। এসময় একটি ভবনের মালিক নকশা বর্হিভুত অংশ নিজে ভেঙ্গে ফেলার অঙ্গিকার করে নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে লিখিত ভাবে সময় নেয়। এ এলাকায় কোন কোন ভবন একাধিকবারও ভাঙ্গ হয়েছিল।

রাজউক জোন-৮ এর পরিচালক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ ইয়াহ ইয়া খান জানান, উচ্ছেদ অভিযান ধারাবাহিক ভাবে চলবে। যে পর্যন্ত পুরো এলাকা নকশা বর্হিভুত নির্মাণ বন্ধ না হয়ে সে পর্যন্ত অভিযান অব্যাহত থাকবে।

অথরাইজড অফিসা মোঃ ইলিয়াস জানান, নকশা বর্হিভুত ভবনের অংশ ভাঙ্গার পাশাপাশি নির্মাণে শুধু মালিকই নয় এর নকশা প্রস্তুতকারী, তদারককারী সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে সর্তক করা হচ্ছে। পরবর্তীকালে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে হবে জানান তিনি।

 

RSS
Follow by Email