সোমবার, মে ২০, ২০২৪
Led04স্বাস্থ্য

প্রো-অ্যাকটিভ হাসপাতালের বিরুদ্ধে ভুল চিকিৎসার অভিযোগ, নারীর মুত্যু

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: সাইনবোর্ডের প্রো-অ্যাকটিভ হাসপাতালে ভুল চিকিৎসার অভিযোগে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে বলে জানান স্বজনরা। শনিবার (২৩ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে ওই নারী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান। তবে এ ঘটনায় কোন অভিযোগ না থাকায় কোন আইনত ব্যবস্থা গ্রহন করা সম্ভব হয়নি। তথ্যটি লাইভ নারায়ণগঞ্জকে নিশ্চিত করেছেন সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (অফিসার ইনচার্জ) আবু বক্কর সিদ্ধিক।

নিহত গৃহবধূর নাম ফারজানা আক্তার (৪০)। মৃত ওই নারীর স্বামীর নাম রুহুল আমীন। তাদের সংসারে দুটি মেয়ে সন্তান রয়েছে।

মৃত নারীর স্বজনরা জানিয়েছেন, আজ ভোর সাড়ে পাঁচটায় ওই গৃহবধূর বুকে ব্যাথা উঠলে তারা তাকে প্রো-অ্যাকটিভ হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানকার ডাক্তাররা হার্ট ফেল করেছে জানিয়ে তাৎক্ষণিক দুটি ইনজেকশন দেয় তাকে। পরে অবস্থার আরও বেগতিক দেখলে এর কিছুক্ষণ পর রোগীকে আইসিইউতে নিয়ে গিয়ে আরও ১০টি ইনজেকশন দেয়। একপর্যায়ে ডাক্তাররা যখন বুঝতে পারেন রোগীর মৃত্যু হয়েছে তখন তারাহুরো করে রোগীকে ঢাকায় নিয়ে যেতে পরামর্শ দেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। পরে রোগীর সঙ্গে থাকা স্বজনরা দেখতে পান সে কোনো শ্বাস-প্রশ্বাস নিচ্ছে না। তখন তারা বুঝতে পারেন তার মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে এই মৃত্যুকে হত্যা দাবি করে ওই গৃহবধুর ভাসুরের ছেলে আনু খান বলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জিজ্ঞেস করেছিলাম কি কি ইনজেকশন দেওয়া হয়েছিল? কিন্তু তারা কোনো উত্তর দেয়নি। এরা এর পূর্বেও এমন অনেকের সঙ্গে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে। এই হাসপাতালের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।

ঘটনার সত্যতা জানতে চাইলে প্রো-অ্যাকটিভ মেডিকেল কলেজ অ্যান্ড হাসপাতালের ডেপুটি জেনারেল ম্যানেজার (ডিজিএম) মো. রাশিদুল ইসলাম জানান, ভুল চিকিৎসায় ওই গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে তা ভুল কথা। কার্ডিয়াক সমস্যা নিয়ে ওই রোগী আজ ভোরে আমাদের হাসপাতালে ভর্তি হোন। পরবর্তীতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে মারা যান। তাকে বাঁচাতে আমরা চেষ্টা কোনো ত্রুটি রাখে নি। রাগের বর্শবর্তী হয়ে হয়তো রোগীর স্বজনরা এখন এই অভিযোগ তুলছেন।

হাসপাতালে বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে কিনা জানতে চাইলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ইন্সপেক্টর (অফিসার ইনচার্জ) আবু বক্কর সিদ্ধিক জানান, আমাদের কাছে অভিযোগ দেওয়া হলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে। আমরা মৃত নারীর স্বজনদের সাথে কথা বলেছি মরদেহ ময়নাতদন্ত করার জন্যে। কিন্তু তারা মরদেহ ময়নাতদন্ত করবে না বলে লাশ নিয়ে গেছেন।

নারায়ণগঞ্জ জেলা সিভিল সার্জন ডা. এ এফ এম মুশিউর রহমান বলেন, ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হলে থানা অভিযোগ দিতে হবে এবং আমাদের বরাবর একটি লিখিত চিঠি পাঠালে আমরা সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নিবো।

RSS
Follow by Email