শনিবার, জুন ২২, ২০২৪
Led01জেলাজুড়েসোনারগাঁ

প্রশাসনের ইজারার অনুমতির আগেই কলেজ মাঠে বসছে পশুর হাট

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: জুন মাসের ১৬ কি ১৭ তারিখ ঈদুল আজহা। ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিরা এ দিনে আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য পছন্দের পশুকে কোরবাণি করবেন। কোরবাণির পশুর হাট বসতে কিছু সময় বাকি , এনিয়ে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন পশু খামারে ভিড় করেছেন অনেকেই। জেলা প্রশাসনের ইজারার অনুমোদনের অপেক্ষায় আছেন ব্যবসায়ীরা। অনুমোদন পেলেই ঈদের সপ্তাহখানিক আগে কোরবাণির পশুর হাট বসাবেন। তবে ইজারার অনুমোদন পাওয়ার আগে থেকেই সোনারগাঁ সরকারি কলেজ প্রাঙ্গনে পশুর হাট বসানোর প্রস্তুতি চলছে।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, বাঁশের খুঁটি সারিবদ্ধভাবে বসিয়ে হাটের কাঠামো তৈরী করা হচ্ছে। কোরাবাণির পশু যাতে সহজে ছাউনিতে রাখা যায় সে আঙ্গিকে প্যান্ডেল সাজানো হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, মোগরাপাড়া ইউনিয়নের প্রভাবশালী কয়েকজন নেতা এ হাট বসিয়ে থাকেন। এ হাটের ইজারায় অন্য কাউকে অংশ নিতে দেওয়া হয় না। কোরবানির পশুর হাট বসানোর সময় সোনারগাঁ সরকারি কলেজ বন্ধ রাখা হয়। এতে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনায় বিঘ্ন ঘটে। হাটের সময় শেষ হলে কোরবানির পশুর বর্জ্যে পরিবেশও দূষিত হয়। ওই সময় দুর্গন্ধে কলেজের আশপাশের সড়কে মানুষজন চলাচল করতে পারে না।

জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রতিবছর ১৭টি অস্থায়ী পশুর হাটের শিডিউল বিক্রির মাধ্যমে ইজারা দিয়ে থাকে প্রশাসন। সরকারি বিধিমালা অনুযায়ী, ঈদুল আজহার এক সপ্তাহ আগে জেলা প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে অস্থায়ী কোরবানির পশুর হাটের ইজারা দেওয়া হয়। সামনে কোরবাণির ঈদের জন্য এখন পর্যন্ত কাউকে অস্থায়ী পশুর হাট বসানোর কোনো অনুমতি দেয়া হয়নি।

এব্যাপারে নারায়ণগঞ্জের স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক মোরীন করিম লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, প্রশাসন থেকে এখনও ইজারার অনুমোদনের প্রসেস চলমান। পরে উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ভেদে ইজারার শিডিউল বিক্রি করা হবে। অনুমোদন বিহীন কোন হাট বসানো যাবে না। যদি বসেও থাকে সেক্ষেত্রে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করা হবে।

সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আব্দুল্লাহ আল মাহফুজ লাইভ নারায়ণগঞ্জকে বলেন, ইজারার অনুমোদনের বিষয়ে জেলা প্রশাসনকে জানানো হয়েছে। সেখান থেকে অনুমতি দেওয়া হলে এর পরবর্তী কাজ চলবে। কলেজের প্রাঙ্গনে হাটের প্রস্তুতির ব্যাপারটি আমার জানা নেই। আমি এ বিষয়টি দেখছি।

RSS
Follow by Email