শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০২৪
Dis_leadধর্মসোনারগাঁ

নোয়াগাঁও, বৈদ্যরবাজার ও সনমান্দিতে পূজা পরিষদের সম্মেলন

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের নোয়াগাঁও, বৈদ্যরবাজার, সনমান্দি ইউনিয়নের দ্বি-বার্ষিক সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। শুক্রবার (৬ অক্টোবর ) বিকেল ৩ টায় উৎসব মুখর পরিবেশে, সোনারগাঁও উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের লাদুরচর রাধা কৃষ্ণ মন্দির প্রাঙ্গণে ওই সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা।

সম্মেলনে জাতীয় সংগীতের সাথে সাথে জাতীয় ও সংগঠনের পতাকা উত্তোলন ও শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে, সম্মেলনের উদ্বোধন করেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক দীপক পাল দীপু।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা বলেন, বঙ্গবন্ধুর বাংলাদেশে কোনো ধরনের সাম্প্রদায়িকতার স্থান নেই। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ দেখতে চেয়েছিলেন। বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা রাষ্ট্র ক্ষমতায় আছেন নারায়ণগঞ্জে সাম্প্রদায়িকতা কোনো স্থান নেই। এ দেশে ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবাই মানুষ। নারায়ণগঞ্জে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্টকারীদের রুখে দিতে হবে।

তিনি আরও বলেন, দেশে যখন কোন উৎসব আসে তখন দেশ বিরোধী সাম্প্রদায়িক অপশক্তি মাথাচাড়া দিয়ে উঠে। কিছু দুষ্কৃতকারী পূজামন্ডপে হামলার চেষ্টা চালায়। কিন্তু এদেশে সাম্প্রদায়িক অপশক্তির কোন স্থান নেই। যারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করতে চাইবে তাদেরকে সমুলে বিনাশ করা হবে। সাম্প্রদায়িক অপশক্তির বিরুদ্ধে সবাইকে সতর্ক থাকতে হবে। ধর্ম যার যার উৎসব সবার। কোন ভয় নেই, নির্ভয়ে, নির্বিঘ্নে দুর্গোৎসব পালন করুন।

এছাড়াও বক্তব্যে আগত অতিথিরা বলেন, সামনে জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও শারদীয় দুর্গোৎসব। ফলে কিছু কিছু দুষ্কৃতকারী দেশে একটি অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করতে চাইবে। তারা অতিতেও শারদীয় দুর্গাপূজাকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন রকমের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি সৃষ্টি করে দেশে একটি অরাজকতা সৃষ্টি করতে চেয়েছিল। সুতরাং আমাদের সবাইকে সজাগ থাকতে হবে।

সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের অর্থপেডিক বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. আবু জাফর চৌধুরী বীরু।

জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সদস্য তাপস কর্মকারের সভাপতিত্বে সম্মেলনে সম্মানিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা পরিষদের নারী সদস্য রূপগঞ্জ উপজেলা মহিলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শ্রীমতি সীমা পাল শিলা, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক শংকর কুমার দে, সাধারণ সম্পাদক শিখণ সরকার শিপন, মহানগর পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বিষ্ণুপদ সাহা, সাধারণ সম্পাদক সুশীল দাস, সোনারগাঁ উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি লোকনাথ দত্ত, সাধারণ সম্পাদক এড. প্রদীপ কুমার ভৌমিক, আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, মহানগর আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক এড. বিদ্যুৎ কুমার সাহা, নোয়াগাঁও ইউনিয়ন পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আঃ রহিম, ইউপি সদস্য জহিরুল ইসলাম, রূপগঞ্জ উপজেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি গনেশ পাল, বন্দরের সাধারণ সম্পাদক শ্যামল বিশ্বাস, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের দপ্তর সম্পাদক অভিরাজ সেন সজল।

সম্মেলন শেষে জগদীশ বর্মনকে সভাপতি ও পিন্টু কর্মকার সাধারণ সম্পাদক করে নোয়াগাঁও ইউনিয়ন, বিশ্বজিৎ ঘোষকে সভাপতি ও নির্মূল দাসকে সাধারণ সম্পাদক করে বৈদ্যরবাজার ইউনিয়ন, বাবুল বর্মনকে সভাপতি ও রতন বর্মনকে সাধারণ সম্পাদক করে সনমান্দি ইউনিয়ন পূজা উদযাপন পরিষদের কমিটির ঘোষণা করেন নারায়ণগঞ্জ জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক শিখণ সরকার শিপন।

RSS
Follow by Email