বুধবার, এপ্রিল ২৪, ২০২৪
রাজনীতিসদর

না.গঞ্জ জেলা ও মহানগর হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ মিছিল

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: মুক্ত আল-আকসা ও স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার দাবির প্রতি সংহতি প্রকাশ ও ইসরাইলী আগ্রাসনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে নারায়ণগঞ্জ জেলা ও মহানগর হেফাজতে ইসলাম।

শুক্রবার (১৩ অক্টোবর) বাদ জুম্মা নগরীর ডিআইটি মসজিদের সামনে সমাবেশটি অনুষ্ঠিত হয়। পরে বিক্ষোভ মিছিলটি শহরের বঙ্গবন্ধু সড়ক দিয়ে চাষাঢ়ায় গিয়ে ফিলিস্তিনিদের জন্য দোয়া ও মোনাজাত করে শেষ হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে মহানগর হেফাজতে ইসলামের সভাপতি মাওলানা ফেরদাউসুর রহমানের সভাপতিত্বে সমাবেশে হেফাজতে ইসলামের নায়েবে আমীর ও জেলা হেফাজতে ইসলামের সভাপতি আল্লামা আব্দুল আউয়াল, অনৈসলামি কার্যক্রম প্রতিরোধ কমিটির আমির আতিকুর রহমান নান্নু মুন্সি, জেলা হেফাজত ইসলামীর সহ-সভাপতি মুফতি বশিরুল্লাহ, মহানগর হেফাজত ইসলামের সাধারণ সম্পাদক মুফতি হারুনুর রশিদ, সহ-সভাপতি মুফতি মাহমুদ হাসান, মাওলানা কামাল উদ্দিন দায়েমি ও সাংগঠনিক সম্পাদক মাওলানা মীর আহমাদুল্লাহ প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সমাবেশে মাওলানা আব্দুল আওয়াল বলেন, আমাদের দেশের সরকার চায় আমেরিকার সমর্থন। সে কী করে ফিলিস্তিনের পক্ষে কথা বলবে? স্বাভাবিকভাবেই তাদের মনে প্রশ্ন ফিলিস্তিনের পক্ষ নিলে যদি দাদা নারাজ হয়ে যাবে। যদি কেয়ামতের ময়দানে নবীর উম্মত হিসেবে নিজের পরিচয় দিতে চাও, তাহলে ইসলামের পক্ষে চলে আসো। নাহলে নবীর উম্মতের কাতারে তোমার নাম থাকবে না।

তিনি বলেন, মুসলমানদের পক্ষে কাজ করতে ব্যার্থ হলে মুসলমানেরাই তোমাকে গদি থেকে টেনে নামিয়ে দেবে। আগামীকাল বায়তুল মোকাররম থেকে সংহতি মিছিল হবে। ইসলামের জন্য কথা বলতে গিয়ে এই নেতারা কারানির্যাতিত হয়েছেন। জেলখানায় আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর নির্যাতন চলছে সেটি মামুনুল হককে দেখলেই আমরা বুঝতে পারি। আলেমদের নির্যাতন করে কেউ টিকতে পারেনি। আমি আবেদন জানাবো, তাদের সবাইকে মুক্তি দিন।

মাওলানা ফেরদাউসুর রহমান বলেছেন, এতদিন শুনেছি খেলার কথা এখন শুনি ফাটাফাটির কথা। কার সাথে খেলবেন এটাও পরিস্কার না, কার সাথে ফাটাফাটি করবেন এটাও পরিস্কার না। কিন্তু আমাদের টা পরিস্কার, আমরা ইহুদিদের বিরুদ্ধে খেলতে চাই। আমরা নাস্তিকদের বিরুদ্ধে ফাটাফাটি করতে চাই। আমরা কাফেররে বিরুদ্ধে সশস্ত্র যুদ্ধ করতে চাই। আমাদের নারায়ণগঞ্জের মানুষ প্রস্তুত। আমাদের আব্দুল আউয়াল সাহেবের নেতৃত্বে যে কোন সময় রক্ত দেয়ার ডাক আসলে, জীবন দেয়ার ডাক আলে; আমরা যেতে প্রস্তুত।

তিনি আরও বলেন, প্রধানমন্ত্রী ও বিরোধী দলের নেত্রীকে বলি, আমরা ফিলিস্তিনে যেতে চাই। ক্ষমতায় থাকতে চাইলে জনগণের এই দাবি বুঝতে চেষ্টা করুন। আসল নেতাকে কারারুদ্ধ করে রেখেছেন। মামুনুল হককে মুক্ত করে দিন আর কোনো নেতা লাগবে না। মামুনুল হকের নেতৃত্বে আমরা সশস্ত্র যুদ্ধ করতে চাই। আমরা কারও রক্তচক্ষু কারও ধমককে ভয় পাই না।

RSS
Follow by Email