শনিবার, জুলাই ২০, ২০২৪
Led03রাজনীতি

নারায়ণগঞ্জের মানুষ সব সময় আওয়ামী লীগকে ভালোবাসে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন একটি অসম্প্রদায়ীক বাংলাদেশ। যা আমরা বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে করতে সক্ষম হয়েছি। নারায়ণগঞ্জে ৫জন এমপি আছেন, সবাই ভালো ব্যাক্তিত্ব। আজ এমপি শামীম ওসমানের ডাকে আপনারা যেভাবে আসছেন সে জন্য আপনাদের ধন্যবাদ। এখানে লাখো জনতার ঢল নেমেছে।

‘বীর বাঙ্গালী ঐক্য গড় বাংলাদেশ রক্ষা করো’ প্রতিপদ্যকে সামনে রেখে নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের ডাকা সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হয়ে তিনি একথা বলেন।

শনিবার (১৬ সেপ্টেম্বর) নারায়ণগঞ্জ শহরের ২নং রেলগেট এলাকায় সমাবেশটির আয়োজন করা হয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা শুধু আমাদের নেত্রী নন। শেখ হাসিনা বিশ্ব নেত্রী, সারা বিশ্বে তাঁর প্রশংসা। আমাদের দেশকে তিনি কোন জায়গা থেকে কোথায় নিয়ে এসেছেন আপনারা সকলেই জানেন। আমাদের দেশ আজ চালে স্বয়ংসম্পূর্ণ। ফলে অনেক ক্রাইসিস আমরা মোকাবিলা করতে পারি। বঙ্গবন্ধুর আমলে জাহাজ ঘুরিয়ে দিয়ে কৃত্রিম সংকট তৈরি করা হয়েছিল। আজ আমরা সব দিকে স্বয়ংসম্পূর্ণ।

তিনি বলেন, নারায়ণগঞ্জের মানুষ সব সময় আওয়ামী লীগকে ভালোবাসে। শামীম ওসমানের পিতা বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ঠ সহচর ছিলেন। তাঁর সন্তানরা আজ নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। আওয়ামী লীগ কখনও ষড়যন্ত্র বা পেশিশক্তিতে বিশ্বাস করে না। আওয়ামী লীগ জনতার শক্তিতে বিশ্বাস করে। বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক চেতনার বাংলাদেশ চেয়েছিলেন। সেই বাংলাদেশ হারিয়ে গিয়েছিল। বঙ্গবন্ধুকন্যার হাত ধরে আমরা সেই চেতনার বাংলাদেশ ফিরে পেয়েছি।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, আমেরিকার প্রেসিডেন্ট হেনরি কিসিঞ্জার বলেছিলেন, বাংলাদেশ বটমলেস বাস্কেট। আজ সে দেশের প্রেসিডেন্ট বলেন, যদি উন্নত হতে চাও বাংলাদেশকে অনুসরণ করো। বঙ্গবন্ধুকন্যা বলেছেন, স্মার্ট বাংলাদেশ গড়বেন। ২০৪১ সালের মধ্যে আমরা স্মার্ট বাংলাদেশে রূপান্তরিত হবো। আমার গর্ব হয়, এই প্রজন্ম নিয়ে। স্মার্ট বাংলাদেশের মূল কারিগর হবে আমাদের নতুন প্রজন্ম।

তিনি আরও বলেন, বেগম খালেদা জিয়া বলেছিলেন, সাবমেরিন কেবল দিয়ে তথ্য পাচার হয়ে যাবে। আমাদের ডিজিটাল হওয়ার দরকার নেই। আজ সেই সাবমেরিন কেবলের মাধ্যমে যোগাযোগ উন্নত হয়েছে। এটাই ডিজিটাল বাংলাদেশ। আগে আমরা বিদেশে গেলে বলতো, তোমাদের পরে পাস দেব, অন্যদের আগে দিত। এখন আমরা বিদেশে গেলে মাথা উঁচু করে বলতে পারি, আমরা বাংলাদেশের মানুষ।

এসময় আরও উপস্থিত ছিলেন- জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বাবু চন্দনশীল, নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল হাই, সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদল (ভিপি বাদল), মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, সোনারগাঁ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. সামসুল ইসলাম ভুইয়া, সাধারণ সম্পাদক সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল্লাহ আল কায়সার হাসনাত, সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মুজিবুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক ইয়াসিন মিয়া, ফতুল্লা থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শাহ নিজাম, যুগ্ম সম্পাদক জিএম আরমান, মহানগর যুবলীগের সভাপতি শাহাদাৎ হোসেন ভুইয়া সাজনু, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এহসানুল হক নিপু প্রমুখ।

RSS
Follow by Email