সোমবার, জুলাই ১৫, ২০২৪
Led05বিশেষ প্রতিবেদনরূপগঞ্জস্বাস্থ্য

নারায়ণগঞ্জের এমবিবিএস চিকিৎসক এখন পথের ফকির

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: মাঝ বয়সী ব্যক্তি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের কবির হোসেন। ক’দিন আগেও ছিলেন চিকিৎসক, এখন পথের ফকির। রাজধানীতে নিজের বাড়ি থাকলেও তিনি গৃহহীন। থাকতেন রাস্তার ফুতপাতে।

কবির হোসেন দাবি করছেন, ‘অসুস্থ্যতার কারণে উপার্জন বন্ধ হওয়ায় বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছে স্ত্রী এবং শ্বাশুড়ী।’

ঢাকার ফুটপাতে মানবেত জীবন যাপনের পর অবশেষে তাঁর ঠাই হয়েছে চট্টগ্রামের অতিথি শালায়।

কবির হোসেনের বাড়ি নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জের তারাবো পৌরসভায়। তিনি ১৯৯৮ সালে রংপুর মেডিকেল কলেজ থেকে চিকিৎসাবিদ্যার পেশাগত স্নাতক ডিগ্রী ব্যাচেলর অব মেডিসিন, ব্যাচেলর অব সার্জারি (এমবিবিএস) অর্জন করেন। কয়েকটি মেডিকেল, ক্লিনিকে চাকুরী, প্রচুর আয়, অর্থবৃত্ত সব ঠিক ঠাক চলছিল। ২০০৬ সালে বিয়ের পর বিপত্তির শুরু। উপার্জনের অর্থে ঢাকায় বাড়ি করেন স্ত্রীর নামে।

কবির হোসেন জানান, অসুস্থ্য হওয়ার পর সেই বাড়ি থেকে বের করে দেন স্ত্রী ও শ্বাশুড়ী। বাসায় গেলে দরজা খুলতেন না। সর্বশেষ তাঁর শ্বাশুড়ীকে কবির হোসেন জিজ্ঞাসা করেছিলেন, টাকা দিতে পারি না বলেই কি বাসায় রাখতেছেন না? উত্তরে তিনি বলেছিলেন, দুনিয়াটাই এরকম।

কবির হোসেনের ভাষ্য, ‘বিয়ে করাটাই ভুল ছিল আমার। স্ত্রী ছিল বহু রূপি।’

আপনজনরা রাস্তায় ছুড়ে ফেললেও তাঁর পাশে দাঁড়িয়েছে অতিথিশালা। মানুষিক ও শারীরিক ভাবে অসুস্থ্য এই চিকিৎসককে গত ৩ সেপ্টেম্বর ঢাকার রাস্তার ফুটপাত থেকে চট্টগ্রামের অতিথিশালায় নিয়ে গেছেন। তাকে বীনা খরচে থাকা-খাওয়া ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করেছে চট্টগ্রামের ওই সংগঠনটি।

অতিথিশালার কো অর্ডিনেটর সাইফুল ইসলাম নেছার জানান, সুস্থ্য হওয়ার আগ পর্যন্ত তিনি এখানেই থাকতে পারবেন।

RSS
Follow by Email