রবিবার, এপ্রিল ১৪, ২০২৪
Led05বন্দররাজনীতি

নভেম্বরে তফসিল, তুইও সমান আমিও সমান; খেলা হবে: শামীম ওসমান

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান বলেছেন, নারায়ণগঞ্জে কোন্দলের নাটক করে বিএনপি নেতাকর্মীরা সময় টিভি ও একাত্তর টিভির সাংবাদিকদের নির্মমভাবে পেটাল। এখনই তারা পেটানো শুরু করে দিয়েছে। সেদিন হকাররা ধাওয়া না দিলে তো মেরেই ফেলত। তাই এদের ছাড় দেয়া যাবে না। যারা এতদিন আমার নেত্রীকে বঙ্গবন্ধুকে গালি দিয়েছেন তারা সাবধান হয়ে যান। ওরা ক্ষমতায় এসে আমাদের বাড়ি হীরা মহলে ওরা হামলা করেছিল। আমরা তো কাউকে আঘাত করিনি। তবে এবার ছাড় দেয়া হবে না।

বৃহস্পতিবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বন্দরের সমরক্ষেত্রে বন্দর উপজেলা ও থানা আওয়ামী লীগ আয়োজিত কর্মী সভায় অংশ নিয়ে একথা বলেন তিনি।

শামীম ওসমান বলেন, বিএনপিতে অনেক ভাল ভাল লোক ছিল। অনেক ভাল নেতা ছিল। কিন্তু বিএনপির ভাল লোকদের তারেক লাথি দিয়ে বের করে দিয়েছে। তারেক যেমন লোক তেমনই লোকজনকে সে বেছে নিয়েছে।

তিনি বলেন, সিদ্ধিরগঞ্জে একজন পলিটিক্যাল প্রস্টিটিউট থাকে। একবার করেছে আওয়ামী লীগ তারপর জাতীয় পার্টি তারপর আবার আওয়ামী লীগ এখন সে বিএনপি। সে ক্ষমতায় থাকাকালীন আমার দলের সতেরো জনকে মেরেছে। সম্পর্কে সে আবার আমার মামুও হয়। আমার শাশুড়ির সাথে পড়ত।

তিনি আরও বলেন, নভেম্বরে তফসিল হবে। সেদিন তুইও সমান আমিও সমান। সেদিন খেলা হবে।

এসময় বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা এম এ রশিদের সভাপতিত্বে কর্মী সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- নারায়ণগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদল (ভিপি বাদল), মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, বন্দর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিমউদ্দিন প্রধান।

আরও উপস্থিত ছিলেন- মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক জিএম আরমান, জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি সানাউল্লাহ সানু, মহানগর জাতীয় পার্টির সভাপতি মোদাচ্ছেরুল হক দুলাল, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি এসানুল হক নিপু, মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক কাউন্সিলর আফজাল হোসেন, মহানগর তাঁতীলীগের আহ্বায়ক চৌধুরী এইচ এম শাহেদ, সাবেক কাউন্সিলর ও মহানগর স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সাইফুদ্দিন আহমেদ দুলাল ও সাবেক মহানগর ছাত্রলীগ নেতা আরাফাত কবীর ফাহিম প্রমুখ।

RSS
Follow by Email