বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০২৪
জেলাজুড়েবিশেষ প্রতিবেদন

নগরীতে শীতে বৃষ্টি ফোঁটা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: দুপুরে ঘন্টা খানিকের জন্য রোদ থাকলেও বেলা গড়াতেই কুয়াশায় ঢেকে যায় নগরী। এবার কুয়াশা ভেঙে নগরীতে পরছে শীতের বৃষ্টি ফোঁটা। বৃষ্টির কারণের তাপমাত্রা কমতির দিকে। শীতের সাথে বৃষ্টি নগরবাসীর ভোগান্তির আরেক কারণ হয়ে দাড়িয়েছে।

বুধবার (২৪ জানুয়ারি) সন্ধার পর থেকে শুরু হয় গুড়ি বৃষ্টি। সরেজমিনে দেখা যায়, ব্যস্ত নগরী হঠাৎ বৃষ্টির কারণে প্রায় নিরব হয়ে গেছে। সড়কের পাশের ফুটপাতের দোকানগুলো গুটিয়ে নিয়েছেন হকাররা। এদিকে ফুটপাতের পথচারীর আনাগোনা কম। ছুটির সময় বৃষ্টির প্রভাবে কর্মস্থল থেকে তড়িঘড়ি করেই বাসায় ফিরছেন সাধারণ মানুষ।

চাকুরীজীবী আবু বক্কর বলেন, অফিস থেকে বের হয়েই দেখি বৃষ্টি। বাসায় যেতে রিকশা খুজছি কিন্তু পাচ্ছি না। তাও ২-১ টা পেলে তারা সাধারনের থেকে বেশি দাম হাকাচ্ছে। তাই বাধ্য হয়েই হেটে যেতে হচ্ছে।

এদিকে প্রাইভেট টিউটর অথৈ বলেন, সন্ধা থেকে আমি কিছু টিউশনি করে এবারে বাসায় ফিরি। কিন্তু বৃষ্টির কারণে সড়কগুলো কাদাময় হয়ে গেছে। আর ছাতা না থাকায় আরো বিপাকে পরতে হচ্ছে। বৃষ্টির কারনে মনে হচ্ছে আরো শীত বেড়ে গেছে।

আবহাওয়া অধিদপ্তর এবং আবহাওয়ার বিভিন্ন ওয়েবসাইট অনুয়ায়ী, রাতে নগরীর তামপাত্রা কমতে পারে। এ হালকা বৃষ্টি আরও র্দীঘ সময় ধরে হওয়ার সম্ভাবনাও আছে।

আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে বলা হয়, জেলার দু-এক জায়গায় হালকা বা গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হতে পারে। এছাড়া অন্যত্র আংশিক মেঘলা আকাশসহ আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। মধ্যরাত থেকে সকাল পর্যন্ত মাঝারি থেকে ঘন কুয়াশা পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে, তা কোথাও কোথাও দুপুর পর্যন্ত অব্যাহত থাকতে পারে। ঘন কুয়াশার কারণে ব্যাহত হতে পারে অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন এবং সড়ক পরিবহন চলাচল। তবে দুপুরের দিকে মৃদু শৈত্যপ্রবাহ কিছু কিছু জায়গায় কমতে পারে। রাতের তাপমাত্রা সামান্য বৃদ্ধিসহ দিনের তাপমাত্রা সামান্য হ্রাস পাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

RSS
Follow by Email