বৃহস্পতিবার, জুন ১৩, ২০২৪
Led02জেলাজুড়েরাজনীতিসদর

তৃণমূল হচ্ছে আনোয়ার ভাই ও আমার ওয়ারিশ: খোকন সাহা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক এড. খোকন সাহা বলেছেন, এই দেশে দুই শ্রেণীর লোক আছে। একটি রয়েছে মুক্তিযুদ্ধের পক্ষে, অপরটি মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষে। মনে রাখতে হবে, মুক্তিযুদ্ধের বিপক্ষের শক্তিকে কারা প্রতিষ্ঠিত করেছে। জামায়াত-শিবিরকে উঠিয়েছে ম্যাডাম খালেদা জিয়া। মহান মুক্তিযুদ্ধের পরে জিয়াউর রহমান মান্নানের মতো ঘৃণীত ব্যক্তিদের এদেশে প্রতিষ্ঠিত করেছেন। যে পতাকা আমরা ৩০ লক্ষ শহীদের রক্তের বিনিময়ে পেয়েছি; যে পতাকা আমার ত্যাগী মা-বোনদের শাড়ির আচলের অংশ, সেই লাল-সবুজের পতাকা ম্যাডাম খালেদা জিয়া ওদের কারণে ক্ষমতায় এসে তুলে দিয়েছিলেন। কত লজ্জার বিষয় এটি। আমাদের এই লজ্জার হাত থেকে আমাদের মুক্ত করলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। শেখ হাসিনা আজ জাতিকে আগলে রেখেছেন। তাই আপনারা শেখ হাসিনার জন্য দোয়া করবেন। আমাদের নেতা-কর্মীদের জন্য দোয়া করবেন, যাতে আমরা দেশের জন্য, নারায়ণগঞ্জবাসীর জন্য কাজ করতে পারি।

মঙ্গলবার (২৬ মার্চ) স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় এ কথা বলেন তিনি। নগরীর ২নং রেল গেইট এলাকায় আওয়ামী লীগের কেন্দ্রী কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।

তিনি বলেন, আমরা ১৭টি ওয়ার্ড কমিটি করেছি। এখানে ২৫-৩০ বছর যাবৎ কমিটির লোক খুজে পাওয়া যেত না। আমরা এখানে ওয়ার্ড কমিটি দিয়েছি। কারও কারও পছন্দ হয় নাই, হতে নাই পারে। আমরা তো মামা জ্যাঠা খালা চাচা চাচি ভাই বোনদের প্রতিষ্ঠা করি নাই। প্রায় সমেয়ই বলি, আনোয়ার ভাই ও আমার রাজনৈতিক ওয়ারিশ নাই। রক্তের ওয়ারিশ রাজনীতিতে আনি নাই। তৃণমূল হচ্ছে আনোয়ার ভাই ও আমার ওয়ারিশ। আমরা যাদের প্রতিষ্ঠা করেছি, সেন্ট্রাল যাদের স্বীকৃতি দিয়েছে সেখানে আর কোন দ্বিধা-দ্বন্দ্বের কোন কারণ নাই। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেক ছোট ভাইয়েরা বিভিন্ন কথা লেখেন। তাদের উদ্দেশ্যে বলবো, রাজনীতিতে শেষ কথা আমি ও আনোয়ার ভাই বিশ্বাস করি না। ভুল করছেন, সঠিক রাস্তায় আসেন।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শেখ হায়দার আলী পুতুল, সহ-সভাপতি এড. হান্নান আহমদ দুলাল, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব, জিএম আরমান, সাংগঠনিক সম্পাদক এড. মাহমুদা বেগম মালা, প্রচার সম্পাদক এড. হাবিব আল মুজাহিদ পলু, দপ্তর সম্পাদক এড. বিদ্যুৎ কুমার সাহা, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা: প্রফেসর আতিকুজ্জামান সোহেল।

আরও উপস্থিত ছিলেন ২৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি এড. মামুন মজিদ, ২৩ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মাহবুব রহমান কমল, ২১ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি সালাউদ্দিন আহাম্মদ , সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান খোকন, ২০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান খোকন, ১৯ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি জসীমউদ্দীন জসু, ২২ নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক গোলাম সারোয়ার সবুজ, ২৫ নং ওয়াড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির সহ বিভিন্ন ওয়ার্ডের নেতৃবৃন্দ।

RSS
Follow by Email