সোমবার, জুন ২৪, ২০২৪
Led04আদালতজেলাজুড়েরূপগঞ্জ

‌টি.কে গ্রুপসহ ২৫ প্রতিষ্ঠা‌নের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ-জরিমানা

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: শীতলক্ষ্যা নদীর পূ্র্ব তীর দখল করে গড়ে উঠা টিকে গ্রুপের শবনম ভেজিটিবল ওয়েল মিলের আংশিকসহ ২৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করেছে বিআইডব্লিউটিএ-র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দর কর্তৃপক্ষ। সোমবার (৭ আগষ্ট) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত রূপগঞ্জ উপজেলার পূর্বগাও এলাকায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের ওই অভিযান পরিচালনা করা হয়।

এ সময় একটি এস্কেভেটর (ভেকু) দিয়ে টিকে গ্রুপের শবনম ভেজিটিবল ওয়েল মিলের নদী দখলকৃত স্থাপনার আংশিক, মেসার্স জান্নাত ওভারসীজ নামের একটি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের নদী দখলকৃত স্থাপনা, টিনশেড ঘর, ৫টি বাশের জেটিসহ সর্বমোট ২৫ টি অবৈধ স্থাপনা ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয়া হয়। শীতলক্ষ্যা নদীতে বালু ফেলে ভরাটের অভিযোগে দুই বালু ব্যবসায়ীকে নগদ ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পাশাপাশি নদীর জায়গায় বালু ও ইট রাখার অপরাধে তা নিলামে ৬০ হাজার টাকায় সর্বোচ্চ ডাককারীকে প্রদান করা হয়।

অভিযানে বিআইডব্লিউটিএর নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসান মারুফের নেতৃত্বে এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বিআইডব্লিউটিএ’র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম-পরিচালক মো. শহীদুল্লাহ, উপ-পরিচালক মো. ইসমাইল হোসেন, সহকারী পরিচালক নাহিদ হোসেনসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা। অভিযানকালে বিপুলসংখ্যক পুলিশ, নৌপুলিশ ও আনসার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

বিকেলে বিআইডব্লিউটিএ’র নারায়ণগঞ্জ নদী বন্দরের যুগ্ম-পরিচালক মো. শহীদুল্লাহ অভিযানের এ বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নদী রক্ষায় সীমানা পিলার, ওয়াকওয়ে নির্মাণ করা হয়েছে। সীমানা পিলারের ভেতরে যেসব অবৈধ স্থাপনা রয়েছে সেসব অবৈধ স্থাপনা পর্যায়ক্রমে উচ্ছেদ করা হবে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসান মারুফ জানান, হাইকোর্টের নির্দেশে নদীর দখলদারদের বিরুদ্ধে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। সোমবার কয়েকটি কারখানার নদী দখলকৃত স্থাপনাসহ ২৫টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়েছে। এছাড়া দুই বালু ব্যবসায়িকে ১ লাখ টাকা জরিমানা ও জব্দকৃত বালু ও ইট ৬০ হাজার টাকা নিলামে বিক্রি করা হয়েছে।

RSS
Follow by Email