শনিবার, জুন ২২, ২০২৪
Led05জেলাজুড়েবিনোদনবিশেষ প্রতিবেদনসদরসোশ্যাল মিডিয়া

জেলা মহিলা পরিষদকে সিনেমা হলে টেনে আনলো ‘পটু’

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বর্তমানের বহু আলোচিত ‘পটু’ দেখতে সিনেমা হলে এসেছেন জেলা মহিলা পরিষদের নেত্রীরা। সোমবার (২০ মে) বিকেলে নগরীর গুলশান সিনেমা হলে সংগঠনের সকল নেত্রীরা উপস্থিত হন। এরপর সিনেমা উপভোগ করে রীতিমত শিল্পীদের অভিনয় এবং গল্পের প্রশংসা করেছেন তারা।

সিনেমার সার্বিক দিক নিয়ে লাইভ নারায়ণগঞ্জের কাছে মতামত প্রকাশ করেন জেলা মহিলা পরিষদ। এসময় সংগঠনের সভাপতি লক্ষ্মী চক্রবর্তী বলেন, পটু সিনেমা টি আসলে আমাদের সমাজের অবস্থা দেখায়। চলচিত্র জগতে এমন ভিন্ন গল্পে সিনেমা আগে দেখিনি। নারায়ণগঞ্জ শত বছর আগেও শিল্প-সংস্কৃতি দিক দিয়ে অন্য জেলার থেকে এগিয়ে ছিলো। নারায়ণগঞ্জ থেকে অনেক অভিনেতা চলচিত্র জগতে অভিনয় করে দেশবাসীর মন জয় করেছে। এখানে শোয়েব মনির আমাদের নারায়ণগঞ্জের সন্তান, পটু সিনেমায় তার অভিনয় অনেক ভালো লেগেছে। আমি এই সিনেমা হলে সেই ৭৪ সনে এসেছিলাম। এরপর আর সিনেমা হলে আসা হয়নি। তবে আজ দীর্ঘ প্রায় অর্ধশত বছরপর এই সিনেমা হলে পটু দেখতে আসলাম। পটুর মতো আজ আমাদের সমাজে অনেক ছোট ছেলে-মেয়ে একট চক্রের স্বিকার হচ্ছে। এই চক্রটি শুধু নারায়ণগঞ্জ নয় সারা বাংলাদেশে ছরিয়ে আছে। চরেরপাড়ের মানুষদের জীবন কেমন সেটা দেখানো হয়েছে এই সিনেমায়। এর সাথে একটি সন্তান হারা পাগল প্রায় মায়ের আকুতি ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। আজ সারা দেশে নারী নির্যাতন ভয়াবহ রূপ ধারন করেছে। সিনেমায় একটি নারীকে একটি বড় অপরাধে কিভাবে নেওয়া হলো সেটাও দেখেছি। আমরা মনে করি এই ধরনের এবং এই মানের বাস্তবকেন্দ্রীক সিনেমা আরও তৈরি করা হোক, যাতে সমাজে কি হচ্ছে সেটা সাধারণ মানুষ জানতে পারে। পটু সিনেমা আমাদের সমাজে আরও প্রচার করা উচিত।

অন্যান্য নেত্রীরা বলেন, পটু সিনেমা জন্য শুভ কামনা থাকবে। এই সিনেমা দেখে অনেক ভালো লাগলো। সিনেমার প্রধান চরিত্রের সকল শিল্পীর অভিনয় অসাধারণ লেগেছে। এমন ছবি যদি চলচিত্র হলে প্রকাশ করা হয় তাহলে মানুষ আবারো সিনেমা হলে আসবে।

এসময় সংগঠনের সহসভাপতি রিনা বেগম, শহর কমিটির শুভা সাহাসহ আরও নেত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।

RSS
Follow by Email