শনিবার, জুন ১৫, ২০২৪
Led03বন্দররাজনীতি

কোন মার্কা, কোন দল আমার জন্য লাগবে না: সেলিম ওসমান

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: ৩টি বিষয় ঠিক থাকলে নির্বাচনে যাবেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের জনপ্রিয় সংসদ সদস্য একেএম সেলিম ওসমান।

প্রথমটি আল্লাহ হায়াত দান করলে, দ্বিতীয়টি আল্লাহ নির্বাচন করার সুযোগ দিলে আর তৃতীয়টি নেত্রী নির্বাচন করার অনুমতি দিলে। তবে, এর আগে জনগণের অনুমতি নিতে চান এই নেতা।

সেলিম ওসমান বলেন, ‘কোন মার্কা, কোন দল, এটা সেলিম ওসমানের জন্য লাগবে না।’।

নারায়ণগঞ্জের বন্দর ইউনিয়নের উন্নয়ন শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় শনিবার (১৪ অক্টোবর) রাত ১০ টার দিকে এহসান উদ্দিন আহমেদ চেয়ারম্যানের বাসায় এ কথা বলেন তিনি।

সেলিম ওসমান বলেন, ‘আমি দল-মতের ঊর্ধ্ব উঠে সকলকে নিয়ে কাজ করেছি। আমি একক ভাবে কোন উন্নয়নই করতে পারিনি, এটা আমার দ্বারা সম্ভব না। তাই কখনই আমাকে উন্নয়নের একক কৃতিত্ব দিবেন না। আজকে আমি এখানে এসেছি, আমার ১০টি ভুল আপনারা ধরিয়ে দিবেন। যাতে আমার অসমাপ্ত কাজ গুলো পরবর্তীতে আমি কিংবা অন্য কেউ এমপি হয়ে আসলে করতে পারে।’

সেলিম ওসমান বলেন, আমার দু’টি কাজ এখনও অসমাপ্ত আছে। এ গুলোর একটি হলো লাঙ্গলবন্দ উন্নয়ন প্রকল্প, অন্যটি শান্তিরচরে শিল্প কারখানা গড়ে তোলা। লাঙ্গলবন্দ উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ কেন বন্ধ হলো আমি জানি না। একটি দুর্ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন করে ছিলাম, সেখানে কোটি কোটি টাকা স্যাংশন হয়েছে। কিছু কাজ হয়েছে, কিছু কাজ হয়নি।

স্থানীয় চেয়ারম্যান প্রসঙ্গে সেলিম ওসমান বলেন, স্থানীয় চেয়ারম্যানরা আমার সাথে আসার পূর্বেই শর্ত দিয়েছি, কোন ঘুষ-দুর্নীতি করা যাবে না, কোন কাজে দেড়ি করা যাবে না, টিআর-কাবিখার টাকা সঠিক ভাবে ব্যবহার করতে হবে। আমি যদি বলতে পারি, আমি জনগণের গোলামী করতে এসেছি, তাহলে আপনাদেরও গোলামী করতে হবে। আমি আমার চেয়ারম্যানদের পাহাড়া দিয়ে রেখেছি।

বন্দর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এহসান উদ্দিন আহমেদের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় উপস্থিত ছিলেন বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ রশিদ, নারায়ণগঞ্জ জেলা জাতীয়পার্টির সভাপতি সানাউল্লাহ সানু, বন্দর থানা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক কাজিম উদ্দিন প্রধান, নারায়ণগঞ্জ মহানগর জাতীয়পার্টির সাধারণ সম্পাদক মো. আফজাল হোসেন, কলাগাছিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান দেলোয়ার প্রধান প্রমুখ।

RSS
Follow by Email