বৃহস্পতিবার, মে ৩০, ২০২৪
আড়াইহাজার

আড়াইহাজারে ৮ প্রিসাইডিং কর্মকর্তাকে শোকজ

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আড়াহাজারে নৌকার প্রচারণায় অংশ নেওয়ায় ৮ প্রিসাইডিং কর্মকর্তাসহ ১২ জনকে কারণ দর্শানোর চিঠি দিয়েছে নির্বাচনী অনুসন্ধান কমিটি। মঙ্গলবার (২৬ ডিসেম্বর) ১২ জনকে চিঠি দিয়ে ২৭ ডিসেম্বর কারণ দর্শাতে নির্দেশ দিয়েছেন নির্বাচনী এলাকা ২০৫ (আড়াইহাজার) এর নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটির সভাপতি ও সিনিয়র সহকারী জজ ধীমান চন্দ্র মন্ডল।

চিঠি পাওয়া ৮ প্রিসাইডিং অফিসার হলেন- দুপ্তারা সেন্ট্রাল করোনেশন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গিয়াস উদ্দিন সরকার, রোকন উদ্দিন মোল্লা গার্লস ডিগ্রি কলেজের সহকারী অধ্যাপক মইনুল হোসেন মানিক, গোপালদী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাদেকুর রহমান কামাল, জাঙ্গালিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জাহেদুল হক, জাহানারা বেগম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফজলুল হক, উজান গোপিন্দী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আনোয়ারুজ্জামান খাঁন, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসাররা হলেন, গাজীপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক লোকমান হোসেন, প্যানেলভুক্ত পোলিং অফিসার উপজেলা স্বাস্থ্য কেন্দ্রের স্বাস্থ্য সহকারী কর্মকর্তা লুৎফুন্নাহার।

বাকি ৪ জন আওয়ামী লীগ নেতা হলেন- খাগকান্দা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আরিফুল ইসলাম, ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মাজেদুল হক রুবেল, যুবলীগের সভাপতি মাহবুবুল আলম ও উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহিদা মোশারফ।

এর আগে সোমবার (২৫ ডিসেম্বর) বিকেলে উপজেলার খাগকান্দা ইউনিয়নের আট নম্বর ওয়ার্ডে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে এই নির্বাচনী উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

প্রিসাইডিং কর্মকর্তাদের চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, দেশের বিভিন্ন ডিজিটাল মাধ্যম ও গণমাধ্যমের সচিত্র প্রতিবেদনসূত্রে গোচরীভূত হয়েছে যে, বিভিন্ন সময় নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নজরুল ইসলাম ওরফে বাবুর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেছেন। আপনি বর্তমান প্রিসাইডিং অফিসার হিসেবে প্যানেলভুক্ত রয়েছেন এবং এরই মধ্যে প্রিসাইডিং অফিসার হিসেবে আপনার ট্রেনিং সম্পন্ন হয়েছে। এমনপর্যায়ে আপনার নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহণ নির্বাচন সংশ্লিষ্ট আইনের চরম লঙ্ঘন।

আপনার উপযুক্ত কর্মকাণ্ডের জন্য আপনার বিরুদ্ধে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট আইন ভঙ্গের দায়ে বিধি মোতাবেক পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য নির্বাচন কমিশনের বরাবরে কেনো সুপারিশ করা হবে না সে মর্মে আগামী ২৭ ডিসেম্বর দুপুর ১২টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালত ভবনের ২০৫ নং কক্ষে অবস্থিত কার্যালয়ে সশরীরে উপস্থিত হয়ে কারণ দর্শানোর জন্য আপনাকে নির্দেশ প্রদান করা হলো।

আওয়ামী লীগ নেতাদের চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, দেশের বিভিন্ন ডিজিটাল মাধ্যম ও গণমাধ্যমের সচিত্র প্রতিবেদনসূত্রে গোচরীভূত হয়েছে যে, বিভিন্ন সময় নারায়ণগঞ্জ-২ (আড়াইহাজার) আসনের আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নজরুল ইসলাম ওরফে বাবুর পক্ষে বিভিন্ন সরকারি কর্মকর্তা ও প্যানেলভুক্ত প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারি প্রিসাইডিং অফিসার এবং পোলিং এজেন্টদের নিয়ে নির্বাচনি প্রচারণায় অংশগ্রহণ করেছেন। এমন পর্যায়ে ওই ব্যাক্তিদের নির্বাচনি প্রচারণায় উপস্থিত করা নির্বাচন সংশ্লিষ্ট আইনের চরম লঙ্ঘন।

আপনার উপযুক্ত কর্মকাণ্ডের জন্য আপনার বিরুদ্ধে নির্বাচন সংশ্লিষ্ট আইন ভঙ্গের দায়ে বিধি মোতাবেক পদক্ষেপ গ্রহণ করার জন্য নির্বাচন কমিশনের বরাবরে কেন সুপারিশ করা হবে না সে মর্মে আগামী ২৭ ডিসেম্বর দুপুর ১টায় নারায়ণগঞ্জ জেলা ও দায়রা জজ আদালত ভবনের ২০৫ নং কক্ষে অবস্থিত কার্যালয়ে সশরীরে উপস্থিত হয়ে কারণ দর্শানোর জন্য আপনাকে নির্দেশ প্রদান করা হলো।

নির্বাচনী এলাকা ২০৫ (আড়াইহাজার) এর নির্বাচন অনুসন্ধান কমিটির সভাপতি ও সিনিয়র সহকারী জজ ধীমান চন্দ্র মণ্ডল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, তাদের শোকজ করা হয়েছে। ২৭ ডিসেম্বর তাদের শোকজের জবাব দিতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

RSS
Follow by Email