শনিবার, মে ২৫, ২০২৪
Led04আড়াইহাজারজেলাজুড়ে

আড়াইহাজারে শিশু ধর্ষণের অভিযোগে মীমাংসার চেষ্টা, যুবক গ্রেপ্তার

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আড়াইহাজারে মাদ্রাসাছাত্রী শিশু (১১)কে মুখ বেঁধে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গত ২১ ফেব্রুয়ারি রাতে উপজেলার মাহমুদপুর ইউনিয়নের রঘুনাথপুর দক্ষিণপাড়া এলাকায় এ ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় শুক্রবার (১৫ মার্চ) ভুক্তভোগীর বাবা থানায় মামলা করেন। এই ঘটনায় এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। তথ্যটি লাইভ নারায়ণগঞ্জকে নিশ্চিত করেছেন আড়াইহাজার থানার ইন্সপেক্টর (অফিসার ইনচার্জ) আহসান উল্লাহ।

আটককৃত যুবকেন নাম সুজন মিয়া (৩১)। সে সোনারগাঁও উপজেলার পেকিরচর গ্রামের আশ্রাফ উদ্দিনের ছেলে। তিনি পেশায় একজন অটোরিকশাচালক। বর্তমানে তিনি আড়াইহাজার উপজেলার লতবদী গ্রামের একটি বাড়িতে ভাড়া থাকেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী শিশুর পরিবার একই বাড়িতে ভাড়া থাকে। গ্রামের একটি মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে সে। ঘটনার দিন সন্ধ্যা ৭টার দিকে শিশুটিকে ঘুরতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে সুজন মিয়া তার অটোরিকশায় তোলেন। পরে একটি সেতুর পাশের নিচু জমিতে নিয়ে কাপড় দিয়ে শিশুটির মুখ বেঁধে ধর্ষণ করেন। এ ঘটনার পর বাসায় ফিরে শিশুটি অঝোরে কাঁদতে থাকে। এরপর মা-বাবার কাছে ঘটনাটি জানায় সে।

আড়াইহাজার থানার ইন্সপেক্টর (অফিসার ইনচার্জ) আহসান উল্লাহ বলেন, ঘটনা ঘটার পর নিজেরা নিজেরা মীমাংসা করার চেষ্টা করেছে। কিন্তু ভিকটিমের পরিবার মীমাংসা ঠিক মনে করেছি। তাই তারা ধর্ষণের মামলা দায়ের করেন। আমরা মামলা নিয়ে সাথে সাথে আসামীকে গ্রেপ্তার করি। গ্রেপ্তারের পরও আসামীপক্ষ মীমাংসা করার চেষ্টা করেছে। আমরা এটাকে কোন ভাবেই প্রশ্রয় দেইনি, অভিযুক্ত সুজনকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

RSS
Follow by Email