সোমবার, জুন ১৭, ২০২৪
Led03জেলাজুড়েবন্দর

আলোর দিশারী মানব কল্যাণ সংঘের ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: আলোর দিশারী মানব কল্যাণ সংঘের উদ্যোগে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (১ মার্চ) সন্ধ্যায় বন্দরের চিতাশালের স্বল্পেরচক এলাকায় এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে সংগঠনটি। শুরুতে অতিথিদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। এরপরই এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণী ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

 

আলোর দিশারী মানব কল্যাণ সংঘের সভাপতি মো. সেলিম কন্ট্রাক্টরের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক মো. চাঁন মিয়া। অনুষ্ঠান সঞ্চলনায় ছিলেন সংগঠনটির সহ-সাধারণ সম্পাদক মো. কিরন মাহমুদ ও সহ-সভাপতি মো. ফয়সাল আহম্মেদ রানা। অনুষ্ঠানের শুভেচ্ছান্তে ছিলেন সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক অন্তর মাহমুদ ও সার্বিক সহযোগিতায় ছিলেন স্বল্পেরচক পুরাতন পঞ্চায়েত কমিটি (দক্ষিণ ও উত্তর অংশ)।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে চাঁন মিয়া বলেন, আলোর দিশারী সংগঠনের আয়োজনে এলাকার সোনামণিদের নিয়ে যে অনুষ্ঠান করা হয়েছে আমি তার সাধুবাদ জানাই। এ অনুষ্ঠানে পঞ্চায়েত কমিটির সদস্যরা, মুরুব্বিরা এসেছেন। কয়েকটি পরিবার নিয়ে এলাকা, কয়েকটি এলাকা নিয়ে একটি পঞ্চায়েত গঠিত হয়। পঞ্চায়েত ভালো ও সুশৃঙ্খল হলে এলাকায় মাদক-দুষ্ট চক্র ছড়াতে পারে না, এলাকাবাসী ভালো থাকবে। পঞ্চায়েতের বিচারকাজ সুন্দর হলে কোর্টে বিভিন্ন মামলা-মোকাদ্দমায় তা মূল্যায়ন করা হয়। এলাকায় কোন মাদক ঢুকতে দেওয়া যাবে না। চলুন আমরা সবাই মাদকের বিরুদ্ধে একত্রিত হই। ছোট্ট সোনামণিদের বলতে চাই, লেখাপড়ার পাশাপাশি খেলা-ধুলা করতে হবে।

তিনি বলেন, আলোর দিশারী সংগঠন সুন্দর সমাজ গড়তে কাজ করছে। আপানাদের কাজে কোন সমস্যা হলে আমাকে ডাকবেন। আমি আছি আপানাদের পাশে। খাঁন মাসুদও যথেষ্ঠ সাহায্য করবে। যেখানে সমস্যা দেখা দেয় সেখানেই খাঁন মাসুদ হাজির হয়। এত অল্প বয়সে বিভিন্ন বিচারকাজ চালিয়ে বন্দরে সে বেশ প্রশংসিত। আমি দোয়া করি, আল্লাহ যেন তাকে বড় পর্যায়ে নিয়ে যান এবং আরও বেশি মানুষের উপকার করার সুযোগ তার হয়। আমাদের জাতি শিক্ষিত হলে, বাইরের দেশে টাকা আয় করতে যাওয়ার লাগবে না। আমরা মেধাবীদের মূল্যায়ন করতে পারি না। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শিক্ষার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন, এমপি মহোদয় স্কুল-কলেজ করে যাচ্ছেন। এতে জাতি শিক্ষিত হওয়ার সুযোগ পাচ্ছে এবং আমাদের সেই সুযোগ কাজে লাগাতে হবে। নিজের সন্তানদের স্কুলে প্রেরণ করতে হবে।

আদর্শ কল্যাণ পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি ইয়াকুব হোসেন প্রদীপ বলেন, বর্তমানে তরুণ সমাজ খুব সহজেই বিপথগামী হচ্ছে। সরকার এই তরুণদের সুপথে নিয়ে আসার জন্য, আলোর পথে নিয়ে আসার চেষ্টা করছে। এর পাশাপাশি অনেক সমাজ সেবক যুব সমাজকে পথ দেখাতে কাজ করে যাচ্ছেন। আমি তাদের এই প্রয়াসকে সাধুবাদ জানাই।

যুবলীগ নেতা খাঁন মাসুদ বলেন, যে কোন আয়োজন সুন্দর করে তুলতে চাই সুন্দর মন ও সাহসিকতা। আজকে সুন্দর এই ‍অনুষ্ঠানের জন্য শিশুরা বেশ আনন্দিত। সংগঠনকে আমি বলতে চাই, ভালো কাজ করতে গেলে বাধা আসবেই। কিন্তু আপনারা কখনও ভেঙে পরবেন না। আপনাদের প্রচেষ্টা চালিয়ে যাবেন। সবাই আছি আপনাদের সাথে।

স্বল্পেরচক পুরাতন পঞ্চায়েক কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি পিরু মিয়া আল চিশতি বলেন, পঞ্চায়েত গঠন করা হয় সবাই মিলে মিশে কাজ করা, মিলে মিশে থাকার উদ্দেশ্যে। এছাড়াও এলাকায় বিভিন্ন সমস্যা সমাধানেও পঞ্চায়েত ভূমিকা রাখে। তাই আমরা একে অপরের সহযোগিতা করে একত্রিত হয়ে বসবাস করবো।

এসময় উপস্থিত ছিলেন এনসিসির ২২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর সুলতান আহম্মেদ, ২৩ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল কাউসার আশা, ঢাকা জজ কোর্টের এড. মাজহারুল আলম খাঁন (পাভেল), ২২-২৩-২৪ নং ওয়ার্ডের সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর শাওন অংকন, এনসিসির ২৩ নং ওয়ার্ডের নাবেক কাউন্সিলর সাইফুদ্দিন আহম্মেদ দুলাল প্রধান, বন্দর থানা যুবলীগ নেতা খাঁন মাসুদ, আদর্শ কল্যাণ পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি ইয়াকুব হোসেন প্রদীপ।

আরও উপস্থিত ছিলেন স্বল্পেরচক পুরাতন পঞ্চায়েক কমিটির সভাপতি হাজী জাহিদুর রহিম, সিনিয়র সহ-সভাপতি পিরু মিয়া আল চিশতি, প্রধান উপদেষ্টা কাজী আব্দুল মালেক, সিনিয়র সহ-সভাপতি হাজী আনোয়ার হোসেন, উপদেষ্টা সিরাজুল ইসলাম সেরু, সাংগঠনিক সম্পাদক শামসুজ্জোহা শামসু, সহ-সভাপতি ফিরোজ, বাবরি জামে মসজিদ কমিটির সভাপতি হাজী তাইজুল ইসলাম, উত্তর কলাবাগ পঞ্চায়েত কমিটির সভাপতি উজ্জ্বল আহম্মেদ প্রমূখ।

RSS
Follow by Email