বুধবার, জুন ১৯, ২০২৪
Led02জেলাজুড়েবন্দররাজনীতি

আপা বলেছেন ব্যালেন্স করে চলতে: সেলিম ওসমান

লাইভ নারায়ণগঞ্জ: বাংলাদেশ এখন ডিজিটাল হয়েছে। অনায়াসেই দূর-দূরান্তের খবর এখন হাতের মুঠোয়ে এসেছে। অফিসে থেকে বাবা বাড়িতে সন্তানের খবর নেন, বাড়িতে থেকে ব্যবসায়ী তার দোকানের খবর নেন। এখন তো শুধু কথা না, অনলাইনে লাইভ চেট করে মুখোমুখি হয়ে কথা বলা যায়। তাহলে এখন বুঝেন, দেশ যখন স্মার্ট বাংলাদেশ হবে তখন কি করা যাবে।

রোববার (২৪ ডিসেম্বর) বন্দরে ডিক্রিরচর ঈদগাহে এক নির্বাচনী উঠান বৈঠকে এসব কথা বলেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে জাতীয় পার্টির প্রার্থী একেএম সেলিম ওসমান। এসময় বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. আবু হাসনাত মো. শহীদ বাদল (ভিপি বাদল), জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি চন্দনশীল, মহানগর আওয়ামী লীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. ওয়াজেদ আলী খোকন, গোগনগর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ফজর আলীসহ অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

সেলিম ওসমান বলেন, রিজভী বলেছে আজ অবরোধ। তারা জনে জনে গিয়ে ভোট না দেওয়ার ডাক দিচ্ছে। ট্যাক্স না দেওয়ার কথা বলছে। তারা নির্বাচনকে আসলে ভয় পায়। নির্বাচন যাতে না হোক, তার জন্য তারা অরাজকতা সৃষ্টি করছে। তারা গত নির্বাচনে ৭ টি আসনে পাশ করেছিল। এক বছরের মধ্যে থেকে গুলশানে বাড়ি করে, গাড়ি কিনে বলে এ নির্বাচন মানি না। আমরা তাদের কথা শুনবো না। আমরা চাই দেশের উন্নতি হোক। বঙ্গবন্ধুকন্যা আবার ক্ষমতায় আসুক। আমি এবার আপাকে বলেছিলাম আমাকে নৌকা দেওয়া হলে নির্বাচন করবো। আপা বললেন, তোমাকে ব্যালেন্স করে চলতে হবে, এবার লাঙ্গলেই নির্বাচন করো। ঘরের ছেলে ঘরেই থাকুক। আপা ইশারা দিলেন আর আমি নির্বাচনে দাঁড়ালাম। আপনারা সবাই ৭ জানুয়ারী ভোটের দিন ভোট দিতে যান। আপনারা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ব্যালট পেপারে ভোট দিন। আমাকে নাই ভোট দিলেন। অন্য কোন মার্কায় সীল দেন। কিন্তু ভোটে অংশ নেন। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য আপনাদেরই প্রয়োজন।

তিনি বলেন, আমার মা-বোনদের আমি বলতে চাই, আপনারা সন্তানদের কথা চিন্তা করে তাদের স্কুলে কলেজে পাঠান। একটা শিক্ষিত সমাজ দেশের উন্নয়নের চাবি-কাঠি। আমি যতটা সম্ভব শিক্ষার জন্য ব্যবস্থা করবো। এখানে স্কুল-কলেজের দরকার আছে। আজকের সন্তানেরাই আগামী দিনের ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান হবে, আদর্শ শাসক হবে।

RSS
Follow by Email